kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

বাংলাদেশকে ৫৮ রানে গুটিয়ে দেওয়াই যার ক্যারিয়ারের একমাত্র অর্জন

অনলাইন ডেস্ক   

৩০ আগস্ট, ২০২১ ১৯:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশকে ৫৮ রানে গুটিয়ে দেওয়াই যার ক্যারিয়ারের একমাত্র অর্জন

মিরপুরের সেই ম্যাচে এভাবেই একের পর এক শিকার ধরে উদযাপন করেছিলেন বিনি। ফাইল ছবি

ক্রিকেট কম রানে অল-আউট হওয়ার ঘটনা কম নেই। এই তো চার দিন আগেও ভারতের মতো শক্তিশালী দল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে ৭৮ রানে অল-আউট হয়ে গেল! বাংলাদেশ দলের জন্যও এমন লজ্জা জুটেছে কয়েকবার। ২০১১ বিশ্বকাপে ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৫৮ রানে অল-আউটের লজ্জায় ডুবতে হয়েছিল টাইগারদের। তিন বছর পর আবারও ঘটে ২০১৪ সালে ভারতের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আবারও ঘটে একই ঘটনা!

সেটি ছিল তাসকিন আহমেদের অভিষেক ম্যাচ। মিরপুর শেরেবাংলায় সেদিন অল্পবয়সী ছেলেটির গতির তোড়ে ভারত মাত্র ১০৫ রানে অল-আউট হয়ে যায়! তাসকিন নেন ৫ উইকেট। সবাই ধরেই নিয়েছিল, বাংলাদেশ হেসেখেলে জিতে যাবে। কিন্তু কই? রান তাড়ায় নেমে মাত্র ৫৮ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা। আর এর পেছনের মূল কারিগর স্টুয়ার্ট বিনি। মাত্র ২৮ বল করে ৪ রান দিয়ে ৬ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশকে তিনি একটাই গুটিয়ে দেন। আজ সেই রজার বিনি ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন।

রজার বিনির ওই বোলিং এখনও ভারতের হয়ে ওয়ানডেতে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। কিন্তু পরে আর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেননি। তাই ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গেছে ৬ টেস্ট, ১৪ ওয়ানডে ও ৩টি টি-টোয়েন্টিতে। এক ম্যাচে ৬ উইকেট নেওয়া বিনি ক্যারিয়ারের বাকি ওয়ানডেগুলোতে পেয়েছেন মাত্র ১৪ উইকেট। বাংলাদেশের বিপক্ষে ওই বোলিংই তার ক্যারিয়ারের একমাত্র অর্জন। অবশ্য স্টুয়ার্টের বাবা রজার বিনি ভারতের ১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ১৮ উইকেটও নিয়েছিলেন।



সাতদিনের সেরা