kalerkantho

সোমবার । ৫ আশ্বিন ১৪২৮। ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১২ সফর ১৪৪৩

মেসি-পিএসজির নতুন ভোর

অনলাইন ডেস্ক   

১২ আগস্ট, ২০২১ ০৩:১৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মেসি-পিএসজির নতুন ভোর

লিওনেল মেসির ফুটবলজীবনে নতুন ভোর। পিএসজিরও। রাতের আইফেল টাওয়ারে ‘লাইট অ্যান্ড সাউন্ড’ শো আয়োজন করে এই কিংবদন্তির আগমনের সদর্প ঘোষণা করেছে পিএসজি। প্রেমের শহর প্যারিসে পা রেখে রাস্তায় ভক্তদের সঙ্গে হেঁটেছেনও মেসি। হয়ে গেছে শারীরিক পরীক্ষা আর দুই বছরের চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা। চাইলে আরো এক বছর মেয়াদ বাড়ানোর ধারাও আছে তাতে। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে মেসিকে পাশে বসিয়ে নতুন যুগ শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন ক্লাব মালিক নাসের আল খেলাইফি। মেসিও তাঁকে স্বপ্ন দেখিয়েছেন অধরা চ্যাম্পিয়নস লিগের। কাতারের এই ধনকুবের পিএসজি কেনার পর সব শিরোপা জিতলেও চ্যাম্পিয়নস লিগটা আক্ষেপ হয়ে আছে এখনো। অনেকে এই দলবদলকে মেলাচ্ছেন ডিয়েগো ম্যারাডোনার বার্সা ছেড়ে নাপোলিতে আসার সঙ্গে। নাপোলিকে একার জাদুতে চ্যাম্পিয়নস লিগ আর সিরি ‘এ’ জিতিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। এবার হয়তো পিএসজিতে আরেক জাদুকর মেসির পালা!

মেসি যখন সংবাদ সম্মেলন করছিলেন তখন বাইরে ভক্তদের আবেগের বিস্ফোরণ, যা অসম্মান করেননি আর্জেন্টাইন ফুটবলের রাজপুত্র। দেখা করেছেন তাঁদের সঙ্গে। পিএসজির মাঠ পার্ক দ্য প্রিন্সেস নতুন ঘর হওয়ায় ক্লাব সভাপতির সঙ্গে ঘুরেও দেখেছেন সেটা। ৩০ নম্বর জার্সি দেখিয়ে তুলেছেন ছবিও। প্যারিসের এই উন্মাদনা আছড়ে পড়েছে মাদাম তুসো জাদুঘরেও। এত দিন সেখানে ছিল বার্সার জার্সি পরা মেসির মোমের মূর্তি। প্যারিসের বিখ্যাত এই জাদুঘরে মূর্তিটা গতকাল বদলে এখন পিএসজির জার্সিতে।

প্রেম, শিল্প আর কবিতার শহরে মেসি পা রাখার পরই জনপ্রিয়তার শিখর ছুঁতে চলেছে পিএসজি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক রাতেই পিএসজির অনুসারী বেড়েছে ৭০ লাখ। ইনস্টাগ্রামে এক সপ্তাহে পিএসজির অনুসারী ১৯ মিলিয়ন থেকে বেড়ে হয়েছে ৪২ মিলিয়ন! শুধু পরশু রাতে ৩৮.৭ মিলিয়ন থেকে বেড়ে হয়েছে ৪২.৭ মিলিয়ন। সংখ্যাটা বেড়েই চলেছে প্রতিনিয়ত। গত মৌসুমে পিএসজির শেষ ম্যাচ ১৫৮টি দেশে দেখেছিলেন ২.৬ মিলিয়ন দর্শক। বলারই অপেক্ষা রাখে না, মেসি আসার পর সংখ্যাটা বাড়বে কয়েক গুণ। ফ্রেঞ্চ লিগের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা কম্পানিগুলোর শেয়ারের দামও বাড়ছে হু হু করে। এমনকি লিগে পিএসজির মুখোমুখি হবে বলে প্রতিদ্বন্দ্বী অলিম্পিক লিঁওর শেয়ারের দাম বেড়ে গেছে ১০ শতাংশ!

পিএসজিতে কর ছাড়া মেসির বার্ষিক বেতন ৪০ মিলিয়ন পাউন্ড হবে বলে জানিয়েছে ‘লেকিপ’ ও ‘লা পেরিসিয়ান’। সাইনিং বোনাস হিসেবে পেয়েছেন ৩০ মিলিয়ন ইউরো। ইমেজ স্বত্ব ও অন্যান্য বোনাস মিলিয়ে বছরে আয় আরো বাড়বে মেসির। এল মুন্দোর ফাঁস করা নথিতে বার্সায় মেসির বেতন ছিল ৭১ মিলিয়ন ইউরো। পিএসজিতে নেইমারের বেতন বছরে ৩৬ মিলিয়ন ইউরো আর কিলিয়ান এমবাপ্পের ২৫ মিলিয়ন ইউরো। এই দুজনের সঙ্গে ‘এমএমএন’ ত্রয়ী যে বিশ্ব ফুটবলে ত্রাস হয়ে আসছে সেটা অনুমেয়ই। বার্সায় সুয়ারেসকে নিয়ে তাঁদের বিখ্যাত ত্রয়ী ছিল ‘এমএনএস’। মেসিকে আবার পেয়ে ইনস্টাগ্রামে নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখেননি নেইমার, ‘আবার একসঙ্গে’। তাঁদের জাদু দেখতে মুখিয়ে একটা সময় বার্সা ও পিএসজিতে খেলা ব্রাজিলিয়ান তারকা রোনালদিনহোও, ‘মেসিকে স্বাগত, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুবাস পাচ্ছি।’ লেকিপ



সাতদিনের সেরা