kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

চিলি-ইকুয়েডর-বলিভিয়ার সঙ্গে গোল করায় মেসিকে ব্যালন ডি’অর দিয়ে দিতে হবে?

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ জুলাই, ২০২১ ১৩:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চিলি-ইকুয়েডর-বলিভিয়ার সঙ্গে গোল করায় মেসিকে ব্যালন ডি’অর দিয়ে দিতে হবে?

টনি ইয়োকা, ফ্রান্সের অলিম্পিক সোনাজয়ী বক্সার। তবে বক্সিং নয়, তিনি এখন আলোচনায় মেসিকে নিয়ে মন্তব্য করে। এ বছর ব্যালন ডি‘অর জয়ের লড়াইয়ে মেসিকে এগিয়ে রাখায় ভীষণ খেপেছেন তিনি। মেসিকে তিনি এবারের ব্যালন ডি’অরের যোগ্য মনে করেন না।

ইনস্টাগ্রামে বিশাল এক পোস্ট দিয়ে ইয়োকা দেখানোর চেষ্টা করেছেন যে, মেসি ব্যালন ডি’অরের যোগ্য নন। তিনি লিখেছেন, ‘আমরা এমন একটা সময়ে বাস করছি যখন লা লিগায় তৃতীয় হওয়া একটি দলের খেলোয়াড়কে ব্যালন ডি’অর দিতে চাই আমরা। যার দল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ১৬-তে ঘরের মাঠে ১-৪ গোলে হেরে বাদ পড়েছে, তাকে ব্যালন ডি’অর দিতে চাই। এমন একজনকে ব্যালন ডি’অর দিতে চাই, যে সুপারকোপা ডি এস্পানার ফাইনালে লালকার্ড খেয়েছে এবং ম্যাচ হেরেছে। শুধু মাত্র চিলি, ইকুয়েডর ও বলিভিয়ার সঙ্গে ৪টি গোল করার জন্য আমরা তাকে ব্যালন ডি’অর দিতে চাচ্ছি।’

ইয়োকা আরো বলেন, ‘সে লা লিগায় ২৯ গোল করেছে এর মধ্যে ২৪টিই পয়েন্ট তালিকার নিচের ৭ দলের বিপক্ষে। চ্যাম্পিয়নস লিগে সে ৫ গোল করেছে যার মধ্যে ৪টিই পেনাল্টি থেকে। সে যদি এটা জিতে তাহলে এটি হবে ইতিহাসের সবচেয়ে নোংরা ব্যালন ডি’অর।’

উল্লেখ্য যে, লা লিগায় মেসির দল বার্সেলোনায় তৃতীয় হয়েছিল। চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ও দ্বিতীয় হয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। চ্যাম্পিয়নস লিগেও বাজে খেলে বার্সা। তবে মেসি ও মেসির আর্জেন্টিনা চমক দেখিয়ে জিতে নিয়েছেন কোপা আমেরিকার শিরোপা। সেখানে গোল্ডেন বুট ও গোল্ডেন বল জেতেন মেসি। কোপায় ৪টি গোল করেছিলেন তিনি। বলিভিয়ার বিপক্ষে দুটি গোল করেন তিনি। এছাড়া চিলি ও ইকুয়েডরের বিপক্ষে করেন একটি করে গোল।



সাতদিনের সেরা