kalerkantho

বুধবার । ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৮ জুলাই ২০২১। ১৭ জিলহজ ১৪৪২

শরীফুলের ৪ উইকেট; জিম্বাবুয়ের মাঝারি স্কোর

অনলাইন ডেস্ক   

১৮ জুলাই, ২০২১ ১৭:১৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শরীফুলের ৪ উইকেট; জিম্বাবুয়ের মাঝারি স্কোর

ছবি : এএফপি

সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে একটা সময় মনে হচ্ছিল স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের স্কোর হয়তো দুইশই ছাড়াবে না। কিন্তু একটা সময় তারা ম্যাচে ফিরে আসে। এই প্রত্যাবর্তনে ব্যাট হাতে দারুণ ভূমিকা রাখেন ওয়েসলি মাধভেরে এবং সিকান্দার রাজা। ৪৬ রানে ৪ উইকেট নিয়ে জিম্বাবুয়ের শেষটা ধসিয়ে দেন শরীফুল ইসলাম। এটাই তার ক্যারিয়ারসেরা বোলিং। নির্ধারিত ৫০ ওভারে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯ উইকেটে ২৪০ রান।

আজ রবিবার হারারে স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেয় জিম্বাবুয়ে। ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলেই আঘাত হানেন তাসকিন আহমেদ। তার বলে আফিফ হোসেনের তালুবন্দি হন টিনাশে কামুনহুকামউই (১)। ৬ষ্ঠ ওভারে মঞ্চে আবির্ভাব মেহেদি মিরাজের। তিনি বোল্ড করে দেন মারুমিকে (১৩)। গত ম্যাচে ৫ উইকেট নেওয়া সাকিব শিকার ধরেন ১৬তম ওভারে। বোল্ড হয়ে যান উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান রেগিস চাকাভাব (২৬)। ৮০ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর এবং ডিওন মরিস।

জুটিতে ৩১ রান আসতেই অদ্ভুতভাবে আউট হয়ে যান ব্রেন্ডন টেইলর। ২৫তম ওভারে শরীফুল ইসলামের শর্ট বলে তিনি আপার কাট করতে গিয়ে ব্যর্থ হন। হতাশায় ব্যাটের শ্যাডো করতে গিয়ে সেটা গিয়ে লাগে স্টাম্পে। ৫৭ বলে ২ চার ১ ছক্কায় ৪৬ রান করে ফিরেন টেইলর। এরপর ফিল্ডিং করার সময় হাতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন মিরাজ। জিম্বাবুয়ের ইনিংসের অর্ধেক শেষ হয় সাকিবের ঘূর্ণিতে। দলীয় ১৪৬ রানে মাহমুদউল্লাহর তালুবন্দি হয়ে ফিরে যান ডিওন মেয়ার্স (৩৪)। উইকেটে আসেন সিকান্দার রাজা। ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা এই অল-রাউন্ডারের সঙ্গে দারুণ জুটি গড়েন মাধভেরে।

দুজনের ব্যাটে চেপে দুইশ ছাড়ায় জিম্বাবুয়ের স্কোর। ৫৪ বলে ক্যারিয়ারের তৃতীয় ফিফটি তুলে নেন মাধভেরে। তার ৬৩ বলে ৫৬ রানের ইনিংসটির ইতি ঘটান শরীফুল। লং অফ থেকে দৌঁড়ে এসে দারুণ ক্যাচ নেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। শেষ হয় ৭০ বলে ৬৩ রানের ৬ষ্ঠ উইকেট জুটি। শরীফুলের তৃতীয় শিকার লুক জঙ্গুই (৮)। দুই বল পরে মুজরাবানিকে (০) ফিরিয়ে নিজের চতুর্থ শিকার ধরেন শরীফুল। একপ্রান্ত আগলে ছিলেন রাজা। তাকে ৩০ রানে লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি করেন সাইফউদ্দিন। নির্ধারিত ৫০ ওভারে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯ উইকেটে ২৪০ রান। ১০ ওভারে ৪৬ রানে ৪ উইকেট নেন শরীফুল।



সাতদিনের সেরা