kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

বিশ্বকাপে হেরে দ্রাবিড়ের সঙ্গে সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন ধোনি-পাঠান

অনলাইন ডেস্ক   

৪ জুলাই, ২০২১ ১৪:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বকাপে হেরে দ্রাবিড়ের সঙ্গে সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন ধোনি-পাঠান

ভারতের দ্বিতীয় জাতীয় দল এই মুহূর্তে আছে শ্রীলঙ্কা সফরে। সিরিজ শুরুর আগে তরুণ প্রতিভাবান ভারতীয় ক্রিকেটারদেরকে একটা ছোট্ট গল্প শোনালেন ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার ইরফান পাঠান। গল্পটি ২০০৭ উইন্ডিজ বিশ্বকাপের। ইরফানের বক্তব্য অনুযায়ী, শ্রীলঙ্কা সফরে ভারতীয় দলের ভরসার জায়গা হলেন রাহুল দ্রাবিড়। কারণ শিখর ধাওয়ানদের বর্তমান কোচ যেভাবে ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়ান সেটা অতুলনীয়। অতীতেও দ্রাবিড়কে বহুবার এই ভূমিকায় পাওয়া গিয়েছিল।

খেলোয়াড়ী জীবনে দ্রাবিড় ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের 'ওয়াল'। যেখানে সব উইকেট পড়ে যেত, সেখানে দেওয়াল হয়ে দাঁড়াতেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার দ্রাবিড়। তার ব্যাটিং স্টাইল, ফিল্ডিং সব কিছুতেই বাকি সবার থেকে দলকে ভরসা দিত। দ্রাবিড়ের এই গুনের বাইরেও একটি অন্য গুন ছিল। তিনি ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলতেন। ক্রিকেটাররা ভেঙে পড়লে তাদের মনোবল বাড়াতেন। দ্রাবিড়কে নিয়ে বহু গল্প প্রচলিত আছে। সেই গল্পের মাঝেই ইরফান পাঠান নিজের একটি গল্প শোনালেন।

ইরফান বলেন, '২০০৭ সালের ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপের একটি ছোট্ট ঘটনা মনে পড়ছে। তিনি (দ্রাবিড়) আমার এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির কাছে এসেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, "দেখো আমরা সবাই মন খারাপ করে ফেলেছি। চলো একটা সিনেমা দেখে আসা যাক।" আমরা সিনেমাটি দেখতে গিয়েছিলাম এবং তারপরে তিনি বলেছিলেন, "দেখো, এটা সত্যি আমরা বিশ্বকাপে হেরেছি। আমরা সবাই একটি বড় পার্থক্য করতে চেয়েছিলাম। তবে সবকিছু এখানেই শেষ নয়। জীবন অনেক বড়। আগামীকাল আবার কামব্যাক করব।'

ইরফান এই গল্পের মধ্যে দিয়ে বোঝাতে চেয়েছেন, যদি কোনো ক্রিকেটার শ্রীলঙ্কা সফরে ব্যর্থ হন, তাহলে তার চিন্তিত হওয়ার কারণ নেই। কারণ রাহুল দ্রাবিড় আছেন। ইরফান বলেন, 'দ্রাবিড় এমন ধরণের একজন মানুষ, যিনি সব সময় ক্রিকেটারদের মাঝে ইতিবাচক মানসিকতা তৈরি করার চেষ্টা করেন। সুতরাং, যদি কেউ, দুর্ভাগ্যক্রমে, শ্রীলঙ্কায় ফর্মের বাইরে চলে যায়, যদি তেমন কিছু ঘটে থাকে, তবে তিনিই প্রথম তাকে গাইড করবেন এবং আত্মবিশ্বাস দেবেন।'



সাতদিনের সেরা