kalerkantho

রবিবার । ১০ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৫ জুলাই ২০২১। ১৪ জিলহজ ১৪৪২

রোনালদোর জোড়া গোলে পর্তুগালের সহজ জয়

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জুন, ২০২১ ০১:১৯ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



রোনালদোর জোড়া গোলে পর্তুগালের সহজ জয়

হাঙ্গেরির বিপক্ষে মাঠে নেমে আরো একটি নতুন রেকর্ড গড়লেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আর নিজের অনন্য কীর্তির দিনে জোড়া গোল করেই রাঙিয়ে রাখলেন তিনি। হাঙ্গেরির বিপক্ষে সহজ জয় দিয়েই ইউরো অভিযান শুরু করল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে মঙ্গলবার স্বাগতিকদের ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে পর্তুগাল। ম্যাচের তিনটি গোলই হয় দ্বিতীয়ার্ধে। রাফায়েল গুয়েরেইরোর গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর জোড়া গোল করেন রোনালদো।

রোনালদো ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এক আসরে ১০টি গোল করার অনন্য কীর্তি গড়েন তিনি। এর আগে ফরাসি কিংবদন্তি মিশেল কিংবদন্তি মিশেল প্লাতিনি ১৯৮৪ ইউরোতে ৯টি গোল করছিলেন।

রোনালদোর রেকর্ড গড়া দিনে অবশ্য তাদের ৮৪ মিনিট পর্যন্ত আটকে রেখেছিল হাঙ্গেরি। দারুণ জমাট রক্ষণে ম্যাচ গোলশূন্য ড্রর দিকেই এগিয়ে যাচ্ছিল তারা। কিন্তু শেষ রক্ষা করতে পারেনি দলটি। গুয়েরেইরোর সৌভাগ্যের গোলের পরই বদলে যায় ম্যাচের চিত্র। শেষ দিকে জাদু দেখিয়ে পর্তুগালকে বড় জয়ই এনে দেন রোনালদো।

একই সঙ্গে দারুণ গতিতে এগিয়ে যাচ্ছেন সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা ইরানের আলী দাইর রেকর্ডের দিকে। এদিনের জোড়া গোলে প্রায় তার ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন রোনালদো। আন্তর্জাতিক ম্যাচে রোনালদোর গোল এখন ১০৬টি। আর ৩টি গোল পেলে ছুঁয়ে ফেলবেন দাইকে। 

এদিন ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো শিরোপাধারীরা। ডি-বক্সের মধ্য থেকে নেওয়া দিয়াগো জোতার শট ঠেকান হাঙ্গেরিয়ান গোলরক্ষক পেতার গুলাক্সি। ৩০তম মিনিটে বের্নার্দো সিলভার ক্রস থেকে লাফিয়ে হেড নিয়েছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। তার হেড লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

৪০তম মিনিটে দারুণ এক সেভ করেন হাঙ্গেরি গোলরক্ষক। নেলসন সেমেদো বাড়ানো বল থেকে ভালো শট নিয়েছিলেন জোতা। তবে তার নেওয়া শট দারুণ দক্ষতায় ঠেকান গোলরক্ষক গুলাক্সি। তিন মিনিট পর তো অবিশ্বাস্য এক মিস করেন রোনালদো। একেবারে ফাঁকা পোস্ট পেয়েও বল জালে পাঠাতে পারেননি তিনি। বাঁ প্রান্ত থেকে ব্রুনো ফার্নান্দেজের ক্রসে রোনালদো ঠিকভাবে পা লাগাতে পারলেই এগিয়ে যেতে পারতো পর্তুগাল। কিন্তু লক্ষ্যেই রাখতে পারেননি এ জুভ তারকা।

৪৭তম মিনিটে কর্নার থেকে দারুণ হেড নিয়েছিলেন পেপে। তবে ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকান গোলরক্ষক গুলাক্সি। তিন মিনিট পর পর্তুগাল বাড়ে প্রথম শট নেয় হাঙ্গেরি। তবে আদাম জালাইর দূরপাল্লার শট তেমন কোনো পরীক্ষায় ফেলতে পারেননি পর্তুগিজ গোলরক্ষক রুই পেত্রিসিওকে। ৫৭তম মিনিটে ভালো শট নিয়েছিলেন রোনালদ সালাই। তবে এবারও প্রস্তুত ছিলেন গোলরক্ষক পেত্রিসিও।

৬৮তম মিনিটে ডি-বক্সের বেশ বাইরে থেকে দারুণ এক শট নিয়েছিলেন ফার্নান্দেজ। ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান হাঙ্গেরি গোলরক্ষক গুলাক্সি। পরের মিনিটে ভালো সুযোগ ছিল হাঙ্গেরির। তবে ঠিকভাবে বলে পা লাগাতে পারেননি সালাই। ৮০তম মিনিটে অবশ্য জালে বল জড়িয়েছিলেন হাঙ্গেরির গের্গো লভরেনসিচ। কিন্তু অফসাইডে থাকায় সে যাত্রা বেঁচে যায় চ্যাম্পিয়নরা।

৮৪তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোল পায় পর্তুগাল। অবশ্য ভাগ্য সঙ্গ দেয় দলটিকে। রাফায়েল গুইরেরোর শট উইলি উরবানের শট পায়ে লেগে দিক বদলে জালে প্রবেশ করে। এর দুই মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে পর্তুগাল। সফল স্পটকিক থেকে গোল আদায় করে নেন রোনালদো।

ডি-বক্সে বদলি খেলোয়াড় রাফা সিলভাকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ম্যাচের যোগ করা সময়ে আরো একটি গোল করেন রোনালদো। রাফার সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে গোলরক্ষককে কাটিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন সময়ের অন্যতম সেরা এ ফুটবলার।

বড় জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করলেও, ‘এফ’ গ্রুপে নিজেদের বাকি দুই ম্যাচে কঠিন পরীক্ষার মুখে পড়তে হবে পর্তুগালকে। আগামী শনিবার (১৯ জুন) তিনবারের ইউরো চ্যাম্পিয়ন জার্মানির মুখোমুখি হবে তারা। আর গ্রুপের শেষ ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স।



সাতদিনের সেরা