kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৯ জুলাই ২০২১। ১৮ জিলহজ ১৪৪২

লেভানডস্কি নাকি হিটলারের বংশধর?

অনলাইন ডেস্ক   

১৪ জুন, ২০২১ ১৮:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লেভানডস্কি নাকি হিটলারের বংশধর?

ছেলেটির রোগা লিকলিকে শরীর। সরু পায়ে অদ্ভুতভাবে হাঁটছে মাঠের মধ্যে। ছেলেটিকে এভাবে নড়াচড়া করতে দেখে রীতিমতো রেগে গিয়েছিলেন ড্যানিয়েল কোলোসিনস্কি। সরাসরি কোচকে গিয়ে প্রশ্ন করে বসেছিলেন, 'এটা কাকে ধরে এনেছেন? এর মধ্যে তো স্ট্রাইকার হওয়ার কিছুই নেই।' কোচও দ্বিধায় ছিলেন। কিন্তু কয়েক বছর যেতে না যেতেই সবার ভুল ভাঙে। সেই লিকলিকে ছেলেটিই হয়ে ওঠেন 'গোল মেশিন' খ্যাত রবার্ট লেভানডস্কি।

রোগা ছেলেটাই আজ সারা বিশ্বের ত্রাস। বক্সের মধ্যে যিনি সব থেকে ভয়ঙ্কর। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসিদের সঙ্গে একসঙ্গে উচ্চারিত হয় তার নাম। অখ্যাত দেশ থেকে উঠে আসা লেভানডস্কি আজ সারা পোলান্ডের স্বপ্ন। সোমবার স্লোভাকিয়া ম্যাচের আগে তাই তিনিই আলোচনার কেন্দ্রে। শোনা যায়, তার পরিবারের সঙ্গে নাকি যোগ রয়েছে নাৎসি নেতা অ্যাডলফ হিটলারের। জার্মানির এক বিশেষজ্ঞ একবার ইতিহাস উল্লেখ করে দাবি করেছিলেন, হিটলারের মেয়ে পলার নাতি লেওয়ানডস্কি।

তবে সেই তথ্যের স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। যে কারণে এই দাবি পরবর্তীতে খারিজ হয়ে যায়। লেভানডস্কি নিজেও তা কোনোদিন স্বীকার করেননি। তবে তার পরিবার খুবই ক্রীড়ামোদী ছিল। বাবা ক্রিস্টফ ছিলেন জাতীয় জুডো চ্যাম্পিয়ন। স্থানীয় ক্লাবের হয়ে ফুটবলও খেলেছেন। মা খেলতেন ভলিবল। ছোট থেকে বাবার হাত  ধরেই লেভানডস্কির ফুটবলে প্রবেশ। কিন্তু রোগা চেহারা হওায় কোনো কোচ নিতে চাইতেন না। সবকিছু জয় করে লেভানডস্কি আজ 'গোল মেশিন'।

লেভানডস্কির এই শারিরীক উন্নতির পেছনে সবচেয়ে বেশি অবদান তার স্ত্রী অ্যানার। সর্বোচ্চ পর্যায়ের ফুটবল খেললেও লেভানডস্কির শরীর বড় চেহারার ডিফেন্ডারদের সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার মতো ছিল না। পেশায় পুষ্টিবিদ অ্যানা নিজের হাতে স্বামীর জন্য খাদ্যতালিকা তৈরি করেন। লেভানডস্কির নির্দিষ্ট জীবনযাত্রা তৈরি করে দেন। আজ বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিট ফুটবলারের মধ্যে লেভানডস্কি একজন। এখন তার চোট-আঘাতের খবর শোনাই যায় না।



সাতদিনের সেরা