kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

ইউরোর প্রথম ম্যাচেই দেখা গেল 'হাতে লাগলেই হ্যান্ডবল নয়' আইন

অনলাইন ডেস্ক   

১২ জুন, ২০২১ ১৭:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইউরোর প্রথম ম্যাচেই দেখা গেল 'হাতে লাগলেই হ্যান্ডবল নয়' আইন

ফিফা কর্তৃক স্বীকৃত ফুটবলের নতুন হ্যান্ডবল আইন ইতালি বনাম তুরস্কের মধ্যকার ইউরো প্রথম ম্যাচেই প্রয়োগ করা হলো। আর এই আইন প্রয়োগের ফলে আরো একবার প্রমাণিত হলো কত সহজেই অতীতে হ্যান্ডবলের কারণে একটি দলকে পেনাল্টি উপহার দেওয়া হয়েছে, যার পরিণতিতে ভুগতে হয়েছে প্রতিপক্ষ দলটিকে। উল্লেখ্য, গত রাশিয়া বিশ্বকাপে ৬৪ ম্যাচে রেকর্ড ২৯টি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়েছিল। 

রোমে অনুষ্ঠিত কালকের ম্যাচটিতে প্রথমার্ধে দুইবার এই আইন প্রয়োগ করেন ডাচ রেফারি ড্যানি ম্যাককেলি। তুরস্কের ডিফেন্ডারের হাতে বল লাগলেও ইতালির খেলোয়াড়দের জোরালো আবেদনের মুখে পেনাল্টির নির্দেশ দেননি ম্যাককেলি। ভিডিড অ্যাসিসটেন্ট রেফারির রিভিউতে বর্তমানে ঘরোয়া ফুটবলে সমর্থকরা এই ধরনের ঘটনায় সাধারণ পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেখে থাকে। কিন্তু দুটি ঘটনায় ম্যাককেলি খেলা চালিয়ে যাবার নির্দেশ দিয়েছেন।

দ্বিতীয়ার্ধে ইতালি তিন গোল দিয়ে শেষ পর্যন্ত ৩-০ ব্যবধানে ম্যাচটি জিতে নেয়। না হলে হয়তো ম্যাচ-পরবর্তী আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়াত ম্যাককেলির ওই সিদ্ধান্তগুলো। উয়েফা যদিও ফুটবলের এই পরিবর্তিত আইনগুলো পুুরোপুরিভাবে মেনে নেয়নি। তাদের ইচ্ছা ছিল, ১ জুলাই থেকে নতুন সমস্ত আইন কার্যকর করা। পরবর্তীতে ইউরোতেই এই আইন প্রয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশ্ব ফুটবলের আইন প্রয়োগকারী প্যানেল (আইএফএবি) মার্চে নতুন এই হ্যান্ডবল আইনের কার্যকারিতার অনুমোদন দেয়।

ইউরোর আগে সব দল ও কোচকে এ বিষয়ে ব্রিফিং দেওয়া হয়েছে। প্যানেলের মতে, কোনো খেলোয়াড়ের হাতে বা বাহুতে লাগা সব বলই শাস্তিযোগ্য নয়। ম্যাচ-পূর্ববর্তী ব্রিফিংয়ে উয়েফা রেফারিং ডাইরেক্টর রবার্তো রোসেত্তি জানিয়েছেন, ইউরোপের বেশ কিছু দেশে হ্যান্ডবল আইনটা বেশ জোরালোভাবে প্রয়োগ করা হয়। নতুনভাবে এই আইনের যে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে তাতে কার্যত ফুটবলের স্পিরিট বেড়েছে এবং খেলোয়াড়দের খেলার প্রতি আরো স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে।

নতুন আইনানুযায়ী ডিফেন্ডারের হাত যদি বলের দিকে না গিয়ে থাকে তবে সেটা পেনাল্টি হবে না। একইসাথে একজন ডিফেন্ডারের শরীরের গঠনের তুলনায় তার হাত বা বাহু যদি 'অস্বাভাবিক বড়’ হয় তবে সেক্ষেত্রে বিষয়টি বিবেচনা করা দেখা হবে। গোলমুখে দুর্ঘটনাবশত কারো হাতে যদি বল লেগে থাকে তবে সেটাও পেনাল্টির জন্য বিবেচিত হবে না। ম্যাককেলির সিদ্ধান্ত ও তার ভিএআর মনিটরিং টিমের সিদ্ধান্তে গতকাল দুই বারই উপকৃত হয়েছে তুরস্ক।



সাতদিনের সেরা