kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

যুবরাজ ভেবেছিলেন, বিশ্বকাপে তিনিই হবেন অধিনায়ক

অনলাইন ডেস্ক   

১০ জুন, ২০২১ ২১:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুবরাজ ভেবেছিলেন, বিশ্বকাপে তিনিই হবেন অধিনায়ক

ভারতের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জিতেছেন যুবরাজ সিং। ক্যান্সারের মতো মারণব্যধিকে হারিয়ে ফিরেছেন ক্রিকেটে। কিন্তু যুবরাজের বিদায়টা ঠিকভাবে হয়নি। দল থেকে বাদ পড়ে একরাশ অভিমান নিয়ে অবসর ঘোষণা করেছিলেন। ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয় দিয়েই ভারতীয় ক্রিকেটে সূচনা হয় মহেন্দ্র সিংহ ধোনি যুগের। তখন থেকেই ভারতীয় ক্রিকেটে 'ক্যাপ্টেন কুল'-এর রাজত্ব শুরু হয়। আর একটা হতাশা গ্রাস করে যুবরাজকে।

ওই বছরেই রাহুল দ্রাবিড়ের নেতৃত্বে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে শোচনীয় ভাবে বিদায় নেয় ভারত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয় ভারতবাসীর মনোভাবই পাল্টে দেয়। সেই টুর্নামেন্টে উল্লেখ্যযোগ্য ভূমিকা রেখেছিলেন যুবরাজ সিংহ। এতদিন পরে যুবরাজ জানালেন, তিনি ভেবেছিলেন ওই টুর্নামেন্টে তাকে অধিনায়ক করা হবে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ধোনিকে অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করা হয়। যে ধোনিকে ছেলের ক্যারিয়ার শেষ হওয়ার জন্য সবসময় দায়ী করেন যুবরাজের বাবা যোগরাজ সিং।

সম্প্রতি যুবরাজ বলেছেন, 'ভারত ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে বিদায় নিয়েছিল। সেই সময় ভারতীয় ক্রিকেটে একটা অস্থিরতা চলছিল। এরপর ইংল্যান্ডে দুই মাসের এবং দক্ষিণ আফ্রিকা ও আয়ারল্যান্ডে এক মাসের সফরে গিয়েছিলাম। তারপরেই ছিল বিশ্বকাপ। প্রায় চার মাস আমরা বিদেশে ঘুরছিলাম। দলের বর্ষীয়ান ক্রিকেটাররা বিরতি নিতে চেয়েছিল। তারা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে গুরুত্বই দেয়নি। ভেবেছিলাম, আমি হয়তো দেশকে নেতৃত্ব দেব। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ধোনিকে অধিনায়ক ঘোষণা করা হয়।'



সাতদিনের সেরা