kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

দলকে ইউরোপসেরা করার পর টুখেলের নতুন লক্ষ্য

অনলাইন ডেস্ক   

৩১ মে, ২০২১ ১৬:৩৮ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



দলকে ইউরোপসেরা করার পর টুখেলের নতুন লক্ষ্য

দীর্ঘ ৫ বছর ধরে পেপ গার্দিওলার অধীনে নিবিড় প্রস্তুতি নেবার পরও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যানচেস্টার সিটি ব্যর্থ হয়েছে। অপরদিকে শিরোপা জয়ের মাধ্যমে চেলসি শনিবার পোর্তোর ফাইনালে দেখিয়ে দিয়েছে মাত্র চার মাসে কী অর্জন করা যায়। ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড এর রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে থমাস টুখেল চেলসির দায়িত্ব পালনের সময় কত দিনই বা হলো। কিন্তু জার্মান কোচ ক্লাবটির ভাগ্যই বদলে দিয়েছেন অতি দ্রুত। দলটিকে তুলে এনেছেন লিগের চতুর্থ অবস্থানে।

সেই সঙ্গে চেলসিকে পৌঁছে দিয়েছেন এফ কাপেরও ফাইনালে। যেখানে লিস্টার সিটির কাছে হেরে শিরোপা হাতছাড়া করেছে পশ্চিম লন্ডনের ক্লাবটি। আর এখনতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাই ঘরে তুলে নিয়েছে ব্লুজরা। জার্মান ফরোয়ার্ড কেই হাভার্টজ এর একমাত্র গোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটিকে পরাজিত করে চেলসি। এই নিয়ে ছয় সপ্তাহের মধ্যে গার্দিওলার সিটিকে তৃতীয়বারের মতো পরাজিত করল টুখেলের শিষ্যরা।

এখন নতুন চুক্তিতে বেশ মোটাতাজা পুরস্কার পাবার লক্ষ্য স্থির করেছেন টুখেল। যদিও স্টামফোর্ড ব্রিজকে বেস্টন করে থাকা চক্রটি পশ্চিম লন্ডনের এই ক্লাবে শিকড় গাড়ার সুযোগ তাকে দিবে কি-না সেটিও এখন দেখার বিষয়। মৌসুমের মধ্যভাগে কোচ বরখাস্ত করার বিষয়টি চেলসির জন্য বেশ ভাল কাজ করছে। ২০১২ সালেও এমন এক সিদ্ধান্তে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা লাভ করেছিল চেলসি। ওই সময় আন্দ্রে ভিলাস বোয়াসকে বরখাস্ত করে রবার্তো ডি মাত্তেওকে নিয়োগ দিয়েছিল ক্লাবটি। এবার তো টুখেলকে নিয়ে সোনালি সময় পার করছে চেলসি।

তবে ৪৭ বছর বয়সি এই কোচ ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার আগে মোটা অংকের অর্থ ব্যায়ে চেলসির দলটি গঠন করা না হলে হয়তো তার এই সফলতা অর্জন করা সম্ভব হতো না। কারণ পুর্বসুরি ল্যাম্পার্ডের অধীনে বেশ কিছু মেধাবী তরুণকে দলভুক্ত করেছে ক্লাবটি। মৌসুমের শুরুতেই এস্তাদিও ডি ড্রাগাও যে সব খেলোয়াড়কে চুক্তিবদ্ধ করিয়েছিল তাদের পাঁচজনই এখন নিয়মিত একাদশের হয়ে খেলছেন। এদের মধ্যে ম্যাচ জয়ের নায়ক হাভার্টজও আছেন। বায়ার লেভারকুজেন থেকে ৭১ মিলিয়ন ইউরোতে তাকে চুক্তিবদ্ধ করিয়েছিল চেলসি।

যুব একাডেমি থেকে চুক্তিবদ্ধ করা রিস জেমস ও ম্যাসন মাউন্টও রয়েছে এই তালিকায়। যারা ইংল্যান্ডের ২০২০ ইউরো স্কোয়াডেও সুযোগ পেয়েছেন। এই দলটি এখনই ইউরোপীয় শিরোপা জয় করলেও তারা একত্রে সবে মাত্র শুরু করেছে নিজেদের অভিযান। টুখেল বলেন, 'আমাদের মধ্যে শক্ত বন্ধন গড়ে উঠেছে। একটি শক্তিশালী গ্রুপ, যাদের ওপর সত্যিই আস্থা রাখা যায়। এটিই হচ্ছে বড় হওয়ার, বিকশিত হওয়ার এবং এখান থেকে শিক্ষা নিয়ে উন্নত হওয়ার সময়।'

টুখেল আরও বলেন, 'আমরা যখন ডর্টমুন্ডে কাপ জিতলাম তখন আমি ক্ষুধা, কম ইচ্ছা বা উচ্চাকাংখা নিয়ে পরবর্তী প্রশিক্ষণে পৌঁছিনি। এখন অবশ্যই কয়েকটি দিন এই উদযাপন করতে হবে। উপভোগ করতে হবে। এক বা দুই সপ্তাহের জন্য হয়তো এটিতে ডুবে থাকতে হবে। তবে বিষ্ময়কর ভাবে এটি আপনার কাছে যথেষ্ট নয়। আমি মনে করি এটি ভাল। কারণ কেউ বিশ্রাম নিতে চায় না। তবে আমি চাই পরের শিরোপাটিও। এরও অংশ হতে চাই আমি। এটিই আমার পরবর্তী লক্ষ্য।'

প্রাথমিকভাবে চেলসির সঙ্গে ১৮ মাসের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন টুখেল। কিন্তু স্বল্প সময়ের মধ্যে তিনিযা অর্জন করেছেন তাতে চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর অধিকার লাভ করেছেন তিনি, 'আমি এখনো শতভাগ নিশ্চিত নই। মনে হচ্ছে এই জয়ের মাধ্যমে আমি চুক্তি নবায়ন করার অধিকার অর্জন করেছি। আমার ম্যানেজার সেই রকমই কিছু একটা বলতে চেয়েছেন। তবে আমি পুরোপুরি জানি না। দেখা যাক কী হয়। আমার লক্ষ্য আরো জয় পাওয়া। একজন কোচ হিসেবে নিজেকে আরো প্রসারিত করা। আর দলটিকেই পরের মৌসুমের জন্য প্রথম দিন থেকেই অনুপ্রাণিত করে তোলা।'



সাতদিনের সেরা