kalerkantho

মঙ্গলবার । ১ আষাঢ় ১৪২৮। ১৫ জুন ২০২১। ৩ জিলকদ ১৪৪২

ইংলিশ লিগের বর্ষসেরা কোচ গার্দিওলা

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ মে, ২০২১ ১৫:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইংলিশ লিগের বর্ষসেরা কোচ গার্দিওলা

ইংল্যান্ডের লিগ ম্যানেজার্স অ্যাসোসিয়েশনের বিচারে বর্ষসেরা কোচ হিসেবে মনোনীত হয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটি বস পেপ গার্দিওলা। এবারের মৌসুমে গার্দিওলার অধীনে সিটি প্রিমিয়ার লিগ ও লিগ কাপের শিরোপা ঘরে তুলেছে। আগামী শনিবার পোর্তোতে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে আরেক ইংলিশ প্রতিদ্বন্দ্বী চেলসির মোকাবেলা করবে সিটিজেনরা। তারা এই প্রথমবারের মতো ইউরোপিয়ান সর্বোচ্চ ক্লাব আসরের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে।

বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখের সাবেক এই ম্যানেজার অ্যাসোসিয়শন সদস্যদের সর্বোচ্চ ভোটে বর্ষসেরা মনোনীত হয়েছেন। এই তালিকায় তিনি পেছনে ফেলেছেন লিডসের মার্সেলো বিয়েসলা, নরউইচের ড্যানিয়েল ফারকে, ওয়েস্ট হ্যামের ডেভিড ময়েস, লিস্টার সিটির ব্রেন্ডন রজার্স ও চেলসির নারী দলের ম্যানেজার এমা হায়াসকে। এ সম্পর্কে গার্দিওলা বলেছেন, 'দ্বিতীয়বারের মতো এলএমএ বর্ষসেরা ম্যানেজারের স্বীকৃতি পেয়ে আমি আনন্দিত। এই পুরস্কারটি আমার কাছে সব সময়ই বিশেষ কিছু। কারণ সতীর্থ ম্যানেজারদের ভোটে এটা নির্ধারিত হয়।'

তিনি আরো বলেন, 'এ ধরনের পুরস্কার দেওয়া তখনই সম্ভব, যেখানে শীর্ষ পেশাদার কোচরা একসঙ্গে কাজ করে থাকে। এই পুরস্কারপ্রাপ্তিতে আমার খেলোয়াড়রাও আমাকে সহযোগিতা করেছে। তাদের জন্যই আজকের এই স্বীকৃতি। তাদের একাত্মতা ও পেশাদারিটা কখনোই ভোলার নয়। এমনকি এমন একটি বিরূপ পরিস্থিতির মধ্যেও আমরা নিজেদের এগিয়ে নিয়ে গেছি। একই সঙ্গ আমার স্টাফরাও প্রশংসার দাবিদার। একসঙ্গে এত প্রতিভাবান মানুষদের সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমি সত্যিই নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি। প্রতিদিনই সবাই মিলে প্রমাণ করেছে কেন সিটিই সেরা। এই পুরস্কারটি আমি সিটির সবার জন্য উৎসর্গ করতে চাই।'

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে ৫০ বছর বয়সী গার্দিওলা তার মাকে হারিয়েছেন। কিন্তু তার পরেও সিটির হয়ে তার এগিয়ে যাওয়া থেমে থাকেনি। গার্দিওলা সম্পর্কে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বেশ কয়েকটি শিরোপাজয়ী সাবেক ম্যানেজার ও বর্তমানে এলএমএ কমিটির সদস্য স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন বলেছেন, 'সত্যিকার অর্থেই সে একজন ঈশ্বর প্রদত্ত প্রতিভাবান কোচ। প্রতিদিনই সে নিজেকে নতুনভাবে প্রমাণ করেছে। আমি নিশ্চিত তাকে নিয়ে তার পরিবারও বেশ গর্ববোধ করে।'



সাতদিনের সেরা