kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

আইপিএল বন্ধ না হলেও সরে দাঁড়াতেন চাহাল

অনলাইন ডেস্ক   

২১ মে, ২০২১ ২০:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইপিএল বন্ধ না হলেও সরে দাঁড়াতেন চাহাল

পরিবারসহ এক ফ্রেমে বন্দি যুজবেন্দ্র চাহাল। ছবি : টুইটার

ভারতে ভয়াবহ করোনা সংক্রমণের কারণে মাঝপথে বন্ধ হয়ে গেছে আইপিএল। তবে যদি আইপিএল বন্ধ না হতো, তবে নিজেই আসর থেকে সরে দাঁড়াতেন স্পিন তারকা যুজবেন্দ্র চাহাল। তবে সেটা অন্য কোনো কারণে নয়। ব্যাঙ্গালুরুর জার্সিতে টুর্নামেন্ট খেলার সময়েই তিনি ভয়ঙ্কর সংবাদ পান। জানতে পারেন বাবা-মা দুজনেই করোনায় আক্রান্ত। তারপরে আর খেলার মানসিকতা ছিল না চাহালের। সম্প্রতি এমন তথ্য দিয়েছেন ভারতের এই রিস্ট স্পিনার।

স্পোর্টস টক-এ সাক্ষাৎকারে চাহাল বলেন ,'বাবা-মা সংক্রমিত হওয়ার পর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়াব। বাড়িতে বাবা-মা যখন অসহায়, তখন খেলাতে ফোকাসই করতে পারছিলাম না। ৩ মে বাবা-মার করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। তার দিন দুয়েক বাদেই টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়ে যায়। যখনই একাধিক দলে পজিটিভ হওয়ার খবর এল, আমরা বুঝতে পেরেছিলাম, টুর্নামেন্ট স্থগিত হতে যাচ্ছে। এটা খুবই দ্রুত ছড়িয়েছে এবং নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে।'

সরে দাঁড়ানোর বিষয়ে মনস্থির করে ফেললেও চাহালকে অবশ্য সেই সিদ্ধান্ত নিতে হয়নি। আইপিএলের বায়ো বাবলের নিরাপত্তাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তেই টুর্নামেন্ট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। যেদিন চাহালের বাবা-মা করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন, সেদিনই নাইট রাইডার্সের দুই জন করোনায় আক্রান্ত হন। ২৪ ঘণ্টা পার হতেই জানা যায়, আইপিএলের বেশ কয়েকটি দলে ৬ জন করোনায় আক্রান্ত। ব্যাপক সমালোচনার মুখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে বিসিসিআই।

টুর্নামেন্ট স্থগিতের পর দেশি-বিদেশি সব ক্রিকেটারকে নিজ নিজ বাড়িতে পাঠানোর ব্যবস্থা করে বিসিসিআই। চাহালও গেছেন বাড়িতে। ৩০ বছর বয়সী এই স্পিনার জানিয়েছেন, তার বাবা-মা দুজনেই সুস্থ হয়ে উঠছেন। বাবা সম্প্রতি হাসপাতাল থেকে বাড়িতেও ফিরেছেন। চাহালের ভাষায়, 'বাবার অক্সিজেন লেভেল ৮৫-৮৬ তে নেমে গিয়েছিল। গতকালই (পরশু) বাড়ি ফিরেছেন। যদিও এখনো  তিনি করোনা পজিটিভ। তবে ভালো খবর হলো অক্সিজেন লেভেল এখন ৯৫-৯৬। এটা আমাদের কাছে অনেক বড় স্বস্তির। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে এখনো ৭-১০ দিন লাগবে।'



সাতদিনের সেরা