kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

'বাংলাদেশ দলে সব সুপারস্টার; আমাদের তাই হারানোর কিছু নেই'

অনলাইন ডেস্ক   

২০ মে, ২০২১ ২১:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'বাংলাদেশ দলে সব সুপারস্টার; আমাদের তাই হারানোর কিছু নেই'

বাংলাদেশের বিপক্ষে আসন্ন তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের আগে অনেকটাই নির্ভার সফরকারী শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল । তারুণ্য নির্ভর দলটি মনে করে, তারকায় ভরপুর টিম টাইগারদের বিপক্ষে তাদের হারানোর কিছুই নেই। লঙ্কান অল-রাউন্ডার ইসুরু উদানার মতে, পূর্ণ শক্তির একটি দলের মোকাবেলা করতে গিয়ে তারা বাড়তি চাপের বোঝা মাথায় নিতে চান না। কারণ নিজেদের মাঠে ওয়ানডে ফর্মেটে বাংলাদেশ খুবই বিপজ্জনক। স্বাগতিক দলকে অদম্য বলে উল্লেখ করলেও উদানার বিশ্বাস, তাদের হারানোর কিছু নেই।

আজ বৃহস্পতিবার মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলনের সময় লঙ্কান অল রাউন্ডার বলেন, 'সত্যিকার অর্থে বাংলাদেশ দলে বেশ কয়েকজন সুপারস্টার রয়েছে। অপরদিকে আমাদের দলটি তারুণ্য নির্ভর। তাই আমাদের হারানোর কিছু নেই। আমি মনে করি আমরা এখানে এসেছি তাদের হারানোর লক্ষ্য নিয়ে। তাদের হারানোর জন্য আমরা নিজেদের সেরাটা দেবার চেষ্টা করব। কারণ নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশ খুবই বিপজ্জনক। আমরা এটা বেশ ভালোভাবেই জানি।'

তারকা ও সিনিয়র খেলোয়াড় বিহীন লঙ্কান দলে উদানাই হচ্ছে সবচেয়ে অভিজ্ঞদের একজন। দলে সিনিয়র খেলোয়াড়দের বাদ রাখার কারণ প্রসঙ্গে লঙ্কান অল রাউন্ডার বলেন, 'সত্যিকার অর্থে নির্বাচনের বিষয়ে আমাদের কারো কোনো হাত নেই। আমরা এখানে এসেছি নিজেদের সেরাটা দেয়ার জন্য। আমার মনে হয় এখানে আমাদের বেশ কিছু দায়িত্ব পালন করতে হবে। কারণ আমি একজন অভিজ্ঞ বোলার। তবে নিজের দিনে একজন তরুণ খেলোয়াড়ও আমার চেয়ে বেশি কিছু করতে পারে। তাই আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে এবং অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে হবে।'

উদানা বাংলাদেশে নিয়মিত সফর করে থাকেন। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) বিভিন্ন ফ্য্রাঞ্চাইজিতে খেলেন তিনি। সেই অভিজ্ঞতাই তিনি এবার কাজে লাগাতে চান, 'তিন চার বছর ধরে আমি বিপিএলে খেলছি। সুতরাং এখানকার কন্ডিশনের বিষেেয় আমার অভিজ্ঞতা আছে। স্বাগতিকদের হারানোর জন্য আমরা নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলব। এটিই হচ্ছে আমাদের পরিকল্পনা।আসলে নিজের জন্যও এটি আমার দারুন এক অভিজ্ঞতা। এবারই আমি প্রথম আইপিএলে যোগ দিয়েছি। আমার মনে হয় এটি হচ্ছে বিশ্বের সেরা একটি লিগ। এটি আমাকে অনেক সহায়তা করছে বলেও আমি মনে করি।'



সাতদিনের সেরা