kalerkantho

বুধবার । ২ আষাঢ় ১৪২৮। ১৬ জুন ২০২১। ৪ জিলকদ ১৪৪২

শচীন টেরই পাননি, শোয়েবের বলে তার পাঁজর ভেঙে গেছে!

অনলাইন ডেস্ক   

১৭ মে, ২০২১ ১৭:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শচীন টেরই পাননি, শোয়েবের বলে তার পাঁজর ভেঙে গেছে!

ব্যাটিং কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার তার ২৪ বছরের দীর্ঘ আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে একাধিক বার চোটের কবলে পড়েছেন। ১৯৯৯ সালের আগে পর্যন্ত সব কিছু ঠিকঠাক চললেও তারপর তিনি বারবার ইনজুরিতে পড়ছিলেন। গোঁড়ালির চোট ছাড়াও টেনিস এলবোর চোটে বারবার জর্জরিত হয়েছেন। তবে অদম্য মানসিক জোর দিয়ে তিনি সব বাধা অতিক্রম করে গেছেন। কিন্তু একবার পাকিস্তানি স্পিডস্টার শোয়েব আখতারের বলে পাঁজর ভেঙে গেলেও টেরই পাননি লিটল মাস্টার! এতদিন পর জানা গেল সেই ইতিহাস।

২০০৭ সালে ভারত সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান। গুয়াহাটিতে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে শোয়েবের বলে পাঁজরে চোট পান শচীন। সম্প্রতি সেই ঘটনা নিয়ে শচীন বলেন, '২০০৭ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচের প্রথম ওভারে শোয়েবের একটা বল আমার পাঁজরে লাগে। সেই জন্য প্রায় এক-দুই মাস যন্ত্রণায় ঘুমাতে পারতাম না। তবে খেলা চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য নিজেই 'রিব গার্ড' তৈরি করেছিলাম। এর মধ্যে আবার পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ শেষ করে অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ খেলেছি। তবে অস্ট্রেলিয়া সফরের শেষ দিকে কুঁচকির চোটে আক্রান্ত হই। তাই দেশে ফিরে সারা শরীর স্ক্যান করার সিদ্ধান্ত নিই। তখন আমার ডাক্তার আমার পাঁজর ভাঙার বিষয়ে জানায়।'

'রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস' খ্যাত শোয়েবের বলে পাওয়া সেই চোটের জন্য ২০০৮ সালের আইপিএলের ৭টি ম্যাচ খেলতে পারেননি শচীন।  তিনি আরও বলেন, 'আমার পাঁজরের অবস্থা যে এত খারাপ হয়ে গেছে, সেটা জানতাম না। আমি তো কুঁচকির ইনজুরি নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু ডাক্তার আমার শরীর স্ক্যান করার পর জানতে পারি যে, পাঁজরের হাড় ভেঙে গেছে। সে কারণে আইপিএলের ৭টি ম্যাচ খেলতে পারিনি।'



সাতদিনের সেরা