kalerkantho

সোমবার । ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৪ জুন ২০২১। ২ জিলকদ ১৪৪২

সমালোচকদের নিয়ে ভাবার সময় নেই মিসবাহর

অনলাইন ডেস্ক   

১৩ মে, ২০২১ ১৫:২৪ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সমালোচকদের নিয়ে ভাবার সময় নেই মিসবাহর

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ে সফরে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেছে পাকিস্তান। তার পরও সমালোচকদের সমালোচনা অব্যাহত রয়েছে। সমালোচকদের মতে, দুর্বল দলের বিপক্ষে সিরিজ জেতায় এত আনন্দের কিছু নেই। তবে সমালোচকদের নিয়ে ভাবার সময় নেই বলে জানালেন পাকিস্তানের কোচ মিসবাহ উল হক। তার মতে, সমালোচকদের কাজ সমালোচনা করা। আমার কাজ দলের সাফল্যে অবদান রাখা। 

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে। চার ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ৩-১ ব্যবধানে জেতে পাকিস্তান। এরপর তারা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে এবং দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জেতে। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দলে ছিলেন না দক্ষিণ আফ্রিকার বেশ কিছু নামি-দামি ক্রিকেটার। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চতুর্দশ আসর নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন- কুইন্টন ডি কক, কাগিসো রাবাদা, এনরিচ নর্টি ও লুঙ্গি এনগিডি। আর ইনজুরির কারণে বেশ কিছু খেলোয়াড় ছিলেন না জিম্বাবুয়ে দলে। তাই অনেকেই মনে করছেন, খর্বশক্তির দলের বিপক্ষে জয় পেয়েছে পাকিস্তান। এতে খেপেছেন পাকিস্তানের কোচ মিসবাহ।

আফ্রিকা সফর শেষে দেশে ফিরে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে আবারও মিসবাহর কাছে জানতে চাওয়া হয়, দুর্বল দলের বিপক্ষে সিরিজ জয় নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। এ ব্যাপারে তার অভিমত কী! মিসবাহ বলেন, 'আমরা শুধু কঠোর পরিশ্রমই করতে পারি। ফলাফল আমাদের হাতে নেই। কোচ হিসেবে নিজের ভবিষ্যৎ ভাবিনি, এখন ভাবতে শুরু করার কোনো ইচ্ছাও নেই। যারা আমার সমালোচনা করে, তারা নিজেদেরই সময় নষ্ট করছে। কে সমালাচনা করল, সেসব নিয়ে আমার একটুও ভাবনা নেই। সেসব নিয়ে ভাবার সময়ও নেই।'

তিনি আরো বলেন, 'দলের সেরা খেলোয়াড়দের না পেলেও, ঘরের মাঠে খেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে যারা খেলেছে, তারা দারুণ পারফরমার ছিল। সেরা দলটার মুখোমুখি হতে না পারা আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যের। কিন্তু নিজেদের কন্ডিশনে তারা ছিল শক্তিশালী দল। শুধু নিজের পারফরম্যান্সের দিকেই আপনি লক্ষ করতে পারেন। প্রতিপক্ষ যদি পুরো শক্তির দল না হয়, সেটা আমাদের দোষ নয়।'

দুটি সফরের পারফরমেন্সে খুশি মিসবাহ। তিনি বলেন, 'দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুটি সফরই আমাদের দারুণ কেটেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশন পুরোপুরি ভিন্ন। সেখানে গিয়ে জয় পাওয়া সব সময় দারুণ কিছু। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টের পারফরম্যান্স প্রশংসনীয়। তবে ওপেনিংয়ে আমাদের আরো উন্নতি করতে হবে।'



সাতদিনের সেরা