kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

একই সময়ে দুই দেশে খেলবে ভারতের দুটি জাতীয় দল!

অনলাইন ডেস্ক   

১১ মে, ২০২১ ১৭:৪৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একই সময়ে দুই দেশে খেলবে ভারতের দুটি জাতীয় দল!

কিছুদিন আগে ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রী বলেছিলেন, পাইপলাইনে যে পরিমাণ ক্রিকেটার আছে তাতে দুটি জাতীয় দল গঠন করা সম্ভব। শাস্ত্রীর কথাই যেন এবার বাস্তবে প্রমাণ হতে যাচ্ছে! ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী বলেছেন, আগস্টে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে ভারত। আবার একই সময়ে তারা ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট সিরিজ খেলবে। তাহলে কীভাবে সম্ভব? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়েই বেরিয়ে এসেছে দুই জাতীয় দল তত্ত্ব।

গত এক দশক ধরে ঘরোয়া ক্রিকেটের ব্যাপক উন্নতি ঘটিয়েছে ভারত। আইপিএলের মতো বিশ্বমানের প্রতিযোগিতার পাশাপাশি ঘরোয়া লিস্ট-এ আর প্রথম শ্রেণির টুর্নামেন্টগুলোও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মান ধারণ করে। যে কারণে তাদের ক্রিকেট কাঠামো এখন অনেক শক্তিশালী আর পাইপলাইনে আছেএ অসংখ্য ক্রিকেটার। দুঃখজনক হলেও সত্য যে, পাইপলাইনে থাকা দুর্দান্ত প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের সবাই জাতীয় দলে সুযোগ পাবেন না। আবার এটাও সত্য যে, তাদের নিয়ে দুটি জাতীয় দল গঠন করা সম্ভব। 

বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী পরিস্কারভাবে বলে দিয়েছেন, আগস্টে শ্রীলঙ্কা সফরে সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি দল যাবে। ক্রিকেট ইতিহাসে একই সময়ে দুটি ভিন্ন জাতীয় দলের খেলার ঘটনা বিরল নয়। ১৯৩০ সালের ১১ ও ১২ জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ভিন্ন দুটি টেস্ট খেলেছিল ইংল্যান্ড। ভারতও এমন ঘটনা ঘটিয়েছিল ১৯৯৮ সালে। সেবার ভারতের একটি দল কমনওয়েলথ গেমসে আর অন্য দল কানাডায় সাহারা কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলছিল।

ভারতীয় বোর্ড সূত্রে আরও জানা গেছে, শ্রীলঙ্কা সফরে প্রধান কোচ হিসেবে যাবেন রাহুল দ্রাবিড়। কারণ তখন রবি শাস্ত্রী দল নিয়ে থাকবেন ইংল্যান্ডে। তাছাড়া শ্রীলঙ্কা সফরে ভারতের ব্যাটিং কোচ, বোলিং কোচসহ কোচিং স্টাফও বদলে যাবে। সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি জাতীয় দল নিয়েই শ্রীলঙ্কায় পা রাখবে ভারত। করোনায় আইপিএল বন্ধ হওয়ায় ভারতীয় বোর্ড এমনিতেই বিশাল অংকের ক্ষতির সন্মুখীন। এই আর্থিক ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নিতেই একই সময়ে দুটি জাতীয় দল খেলানোর চিন্তা করেছে বিসিসিআই।



সাতদিনের সেরা