kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

রিয়ালের টাকায় দল সাজিয়ে রিয়ালেরই সর্বনাশ করেছে চেলসি!

অনলাইন ডেস্ক   

৭ মে, ২০২১ ১৪:৩২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রিয়ালের টাকায় দল সাজিয়ে রিয়ালেরই সর্বনাশ করেছে চেলসি!

সবাইকে অবাক করে দিয়ে ২০১৯ সালে ১৬০ মিলিয়ন ইউরোতে ইংলিশ ক্লাব চেলসি থেকে ইডেন হ্যাজার্ডকে কিনে স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। চেলসির সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, তিন ধাপে ট্রান্সফার ফির অর্থ পরিশোধ করে রিয়াল।

২০১৯ সালে ৪০ মিলিয়ন, দ্বিতীয় ধাপে ৫৬ মিলিয়ন এবং শেষ ধাপে ৬৪ মিলিয়ন ইউরো শোধ করা হয়। এই অর্থ কাজে লাগিয়ে চেলসি এমন এক দল বানিয়েছে, যারা কি না দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে সেই রিয়াল মাদ্রিদকেই চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় করে দিয়েছে।

চেলসি গত মৌসুমে ৮০ মিলিয়ন ইউরোতে মিডফিল্ডার কাই হাভার্টজ, ৫৩ মিলিয়ন ইউরোতে ফরোয়ার্ড টিমো ভের্নার এবং ২৫ মিলিয়ন ইউরোতে গোলরক্ষক এদুয়ার্দ মেন্দিকে কিনেছে। এই তিন খেলোয়াড়ই এবার রিয়ালকে বিদায় করে দেওয়ার পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছেন। মজার ব্যাপার হচ্ছে, এই তিন খেলোয়াড়ের সম্মিলিত ট্রান্সফার ফি হ্যাজার্ডের চেয়ে ৩ মিলিয়ন ইউরো কম।

রিয়ালে আসার পর থেকেই ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করে যাচ্ছেন হ্যাজার্ড। খেলেছেন মাত্র ৪০ ম্যাচ, মিস করেছেন ৬৬ ম্যাচ। আর ৪০ ম্যাচে তিনি গোল করেছেন মাত্র ৪টি, অ্যাসিস্ট ৭টি। রিয়ালের জন্য সবচেয়ে হতাশার বিষয় হচ্ছে, ২০২০ সালের গ্রীষ্মেই বিনা ট্রান্সফার ফি’তেই হ্যাজার্ডকে নিতে পারত তারা।

হ্যাজার্ডকে নিয়ে রিয়ালের সমর্থকদের মনেও ক্ষোভ বাড়ছেই। বিশেষ করে চেলসির কাছে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায়ের পর চেলসির কয়েকজন খেলোয়াড়ের সঙ্গে হ্যাজার্ডকে মাঠেই হাসি-তামাশা করতে দেখে সেই ক্ষোভ আরও বেড়ে গেছে।
রিয়াল সমর্থকরা মনে করেন, রিয়ালের ৭ নম্বর জার্সির যোগ্য নয় হ্যাজার্ড। চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলেননি তিনি। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও রাউল গঞ্জালেসের মতো কিংবদন্তি খেলোয়াড়রা যে জার্সি পরে খেলতেন সেই ৭ নম্বর জার্সির অবমূল্যায়নও করে চলেছেন হ্যাজার্ড।

সূত্র: মার্কা



সাতদিনের সেরা