kalerkantho

বুধবার । ২ আষাঢ় ১৪২৮। ১৬ জুন ২০২১। ৪ জিলকদ ১৪৪২

আইপিএল-পিএসএল-ঈদ শপিং বন্ধের আহ্বান শোয়েবের

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ এপ্রিল, ২০২১ ১৬:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইপিএল-পিএসএল-ঈদ শপিং বন্ধের আহ্বান শোয়েবের

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার কয়েকটি দেশে। ভারতের অবস্থা ভয়াবহ। প্রতিদিন গড়ে সংক্রমণসংখ্যা প্রায় তিন লাখ। হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে। বাংলাদেশে চলতি লকডাউন ৫ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এর মাঝে ভারতে চলছে আইপিএল। পাকিস্তানও পিএসএলের স্থগিত আসর চালুর চেষ্টা করছে। আর বাংলাদেশ-পাকিস্তানে শুরু হয়েছে 'ঈদ শপিং'! করোনা থেকে বাঁচতে সবকিছু বন্ধের আহ্বান জানালেন পাকিস্তানের সাবেক পেস সুপারস্টার শোয়েব আখতার।

নিজের অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েব বলেন, 'ভারত ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছে। যথাযথ ব্যবস্থা নিয়ে চালিয়ে যেতে না পারলে তাদের আইপিএল বন্ধ করা উচিত। তা না হলে ভারত যে পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে, সে বিচারে বলতে পারি, আইপিএল স্থগিত করা প্রয়োজন। পিএসএল স্থগিত হয়েছিল বলে যে আইপিএলও স্থগিত করার কথা বলছি, তা নয়। আমি মনে করি, জুনে পিএসএলও স্থগিত হওয়া উচিত।'

মূলতঃ আর্থিকভাবে লাভবান হতেই আইপিএল চালানো হচ্ছে। এই বিষয়টি তুলে ধরে শোয়েব বলেন, 'আইপিএল গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয়, সেখানে যে পরিমাণ টাকা খরচ করা হচ্ছে, সেটা অক্সিজেন ট্যাংক কেনার জন্য ব্যয় করা উচিত। এটা মানুষকে মৃত্যু থেকে বাঁচাবে। এই মুহূর্তে আমাদের ক্রিকেট কিংবা বিনোদনের প্রয়োজন নেই। আমরা ভারত ও পাকিস্তানে মানুষের জীবন বাঁচাতে চাই। আমি এভাবে জোর দিয়ে বলছি, কারণ মানুষের জীবন এখন সংকটের মুখে।'

পাকিস্তানে গতকাল ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১১৮ জনের। নতুন সংক্রমণের সংখ্যা সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি। বাংলাদেশের মতো সেখানেও মানুষ ঈদের কেনাকাটায় ব্যস্ত। সবাইকে সতর্ক করে শোয়েব আরও বলেন, 'পাকিস্তান খাদের কিনারে রয়েছে। আর মাত্র ১০ শতাংশ অক্সিজেন সংকুলান করা সম্ভব। কিন্তু লোকজন সঠিক সুরক্ষাব্যবস্থা মানছে না। রমজানের শেষ ১০ থেকে ১৫ দিনে কারফিউ জারির আবেদন জানাচ্ছি পাকিস্তানে। ঈদের কেনাকাটায় যাওয়ার দরকার নেই। লোকজনকে সাবধান থাকতে নিজেদের সুরক্ষা নিজেদেরই নিশ্চিত করতে হবে।'



সাতদিনের সেরা