kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

সুপার ওভার রোমাঞ্চের ম্যাচ জিতল দিল্লি

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ এপ্রিল, ২০২১ ০১:৪২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সুপার ওভার রোমাঞ্চের ম্যাচ জিতল দিল্লি

চলতি মৌসুমের প্রথম সুপার ওভার দেখল ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেট। সুপার ওভারে লক্ষ্যটা ছিল ৮ রানের। তাই করতে ঘাম ছুটে গেল দিল্লি ক্যাপিটালসের। অপেক্ষা করতে হয় শেষ বল পর্যন্ত। সেখানেও রোমাঞ্চ। রানআউট হওয়ার জোরাল সম্ভাবনা ছিল। তবে শেষ পর্যন্ত বিপদ না হওয়ায় সানরাইজার্স হায়দারাবাদকে হারিয়ে যৌথভাবে শীর্ষে উঠল দলটি।

চেন্নাইয়ে রবিবার রাতে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দারাবাদকে সুপার ওভারে হারিয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। মূল ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৫৯ রান করে তারা। জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫৯ রান করে হায়দারাবাদও।

তবে মূল ম্যাচেও হারের পথে ছিল হায়দারাবাদ। একের পর এক ব্যাটসম্যানরা যখন উইকেট হারানোর মিছিলে যোগ দিচ্ছিলেন, সেখানে ১৯তম ওভারে নেমে দুটি চার মেরে সানরাইজার্স হায়দারাবাদের স্বপ্নটা জোরালো করেন জগদিশা সুচিথ। শেষ ওভারে তখন দরকার ১৬ রান। অপর প্রান্তে সেট ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন। এ দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাটে রান আসল ১৫। তাতেই ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে।

এর আগে লক্ষ্য তাড়ায় ছোট ছোট জুটিতে এগিয়ে যাচ্ছিল হায়দারাবাদ। ব্যক্তিগত ৬ রানে রানআউট হয়ে ফিরে যান অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। অপর প্রান্তে আরেক ওপেনার জনি বেয়ারস্টো বেশ আগ্রাসী ব্যাট চালাতে থাকেন। ১৮ বলেই ৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৩৮ রান করে আবিশ খানের বলে আউট হন তিনি।

এরপর এক প্রান্ত আগলে ব্যাটিং করতে থাকেন কেন উইলিয়ামসন। মূলত তার ব্যাটেই সুপার ওভার পর্যন্ত যেতে পারে দলটি। ৫১ বলে ৮টি চারের সাহায্যে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। শেষ দিকে সুচিথ করেন অপরাজিত ১৪ রান।

দিল্লির পক্ষে ৩৪ রানের খরচায় ৩টি উইকেট পান আভিস। ২টি শিকার অক্ষর প্যাটেলের।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণ করে দিল্লি। পৃথ্বী ও শিখর ধাওয়ানের ওপেনিং জুটিতেই আসে ৮১ রান। এরপর অবস্নহ্য ৩ রানের ব্যবধানে এ দুই ওপেনারকে হারায় দলটি। তৃতীয় উইকেটে অজি ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথকে নিয়ে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক রিশাভ পান্ত। গড়েন ৫৮ রানের জুটি। তাতেই লড়াইয়ের পুঁজি পায় দলটি।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৩ রানের ইনিংস খেলেন পৃথ্বী। ৩৯ বলে ৭টি চার ও ১টি ছক্কায় এ রান করেন এ ওপেনার। ২৭ বলে ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩৭ রান করেন অধিনায়ক পান্ত। ২৫ বলে ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩৪ রানের অপরাজিত থাকেন স্মিথ। ধাওয়ানের ব্যাট থেকে আসে ২৮ রান।

হায়দারাবাদের হয়ে ৩১ রানের খরচায় ২টি উইকেট পান সিদ্ধার্থ কাউল।



সাতদিনের সেরা