kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

বিতর্কিত 'সুপার লিগ' নিয়ে কে কি বলেছেন?

অনলাইন ডেস্ক   

২০ এপ্রিল, ২০২১ ২০:১১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিতর্কিত 'সুপার লিগ' নিয়ে কে কি বলেছেন?

ছদ্মবেশী বিতর্কিত ইউরোপীয় সুপার লিগে নিজেদের অংশগ্রহণের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে ম্যানচেষ্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, আর্সেনাল, চেলসি, ম্যানচেষ্টার সিটি, টটেনহ্যাম , বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, জুভেন্টাস, এসি মিলান ও ইন্টার মিলান। ইউরোপীয় ক্রীড়াঙ্গনের আলোচিত ওই ঘটনা প্রসঙ্গে বিভিন্ন মহলের প্রতিক্রিয়া উঠে এসেছে বার্তা সংস্থা এএফপির এই প্রতিবেদনে।

ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো এই প্রসঙ্গে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, 'ইউরোপীয় ক্রীড়াঙ্গনের মডেল রক্ষার দায়িত্ব আমাদের। সুতরাং কেউ যদি নিজেদের মত করে চলতে চায়, তাহলে তাদেরকে অবশ্যই তাদের ওই পছন্দের ফল নিয়েই বেঁচে থাকতে হবে। নিজেদের পছন্দের দায় তাদের উপরই বর্তাবে।'

ইউরোপীয় ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফা সুপার লিগে অংশগ্রহন করতে যাওয়া ক্লাববগুলোকে ইউরোপীয় প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ করার হুমকি দিয়ে বলেছে, 'ওই ক্লাবগুলোকে ঘরোয়া, ইউরোপীয় কিংবা বিশ্ব্ পর্যায়ের টুর্নামেন্ট থেকে নিষিদ্ধ করা হবে। একই সঙ্গে তাদের খেলোয়াড়দের বঞ্চিত করা হবে জাতীয় দল থেকে।'

উয়েফা সভাপতি আলেক্সান্দের সেফেরিন বলেন, 'লোভে পড়ে এরকম একটি অপমানজনক, স্বরচিত প্রস্তাবের বিপক্ষে কেন সবাই একত্রে আরো জোড়ালো ভাবে চাপ দিতে পারছেনা তা আমি বুঝতে পারছি না। মত পরিবর্তনের সময় এখনো আছে। সবাই ভুল করে। পরে আবার সম্বিৎ ফিরে পায়।'

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ কর্তপক্ষ বলেছে, 'ইংল্যান্ড ও গোটা ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাবের সমর্থকরা এখন স্বপ্ন দেখছে একদিন তাদের ক্লাবগুলো শীর্ষস্থানে উঠবে এবং সেরা দলের মোকাবেলা করবে। আমাদের বিশ্ব্াস ইউরোপীয় সুপার লিগের এই ধারনাটি তাদের ওই স্বপ্নকে ভেঙ্গে দিবে।'

স্প্যানিশ লা লিগা কর্তৃপক্ষ বলেছে, 'প্রস্তাবিত ইউরোপীয় প্রতিযোগিতার এই ধারনাটি স্বার্থপরতা ছাড়া কিছুই নয়। সুপার ধনীদের আরো সমৃদ্ধ করার জন্য এটি একটি অহংকারমুলক প্রস্তাবনা।'

তবে সুপার লিগের চেয়ারম্যান ও রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাবের সভাপতি ফ্লোরেন্টিনো পেরেজ বলেন, 'আমাদের ভাবতে হবে ১৬ থেকে ২৪ বছর বয়সিরা ফুটবলের প্রতি কেন আগ্রহ হারায়। কারণ মান সম্পন্ন খেলার ঘাটতি। এটি বিনোদনের আরেকটি মঞ্চ। ফুটবলে কোন পরিবর্তন হচ্ছে না।'

লিভারপুলের মিডফিল্ডার জেমস মিলনার নিজ ক্লাবের এমন পরিকল্পনার বিরোধিতা করে বলেন, 'আমার ব্যক্তিগত মত হচ্ছে এমন কর্যকলাপ আমার পছন্দ নয়। আশা করি এমনটা ঘটবে না।'

লিভারপুল কোচ জার্গেন ক্লপ বলেন, 'আমি ক্লাবের প্রতি আমার দায়বদ্ধতার কারণে আমাদের সমর্থকদের প্রতি চাহিদার প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমি নিশ্চিত এটি হবে খুব কঠিন সময়, তবে দলকে সহায়তা করার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা থাকবে।'

অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কোচ দিয়াগো সিমিওনে বলেন, 'আমরা কোচরা নিজ নিজ ক্লাবকে প্রশিক্ষন দেয়ার জন্য প্রস্তুত। নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে ক্লাবগুলোর সিদ্ধান্তের বিষয়ে আমার বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই।'



সাতদিনের সেরা