kalerkantho

শনিবার । ২৫ বৈশাখ ১৪২৮। ৮ মে ২০২১। ২৫ রমজান ১৪৪২

নেইমার নিরাপদে; মেসি-রোনালদো তাহলে বিশ্বকাপে 'নিষিদ্ধ'?

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ এপ্রিল, ২০২১ ১৯:৩৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নেইমার নিরাপদে; মেসি-রোনালদো তাহলে বিশ্বকাপে 'নিষিদ্ধ'?

বিদ্রোহী ক্লাবগুলোর 'ইউরোপিয়ান সুপার লিগ' এর ঘোষণায় সারা ফুটবলবিশ্বে তোলপাড় চলছে। ফিফা, উয়েফা ছাড়াও নতুন লিগের তীব্র বিরোধিতা করেছেন বিভিন্ন দেশের প্রধানমন্ত্রী। উয়েফা হুঁশিয়ারি দিয়েছে, অবিলম্বে এই লিগের পরিকল্পনা বন্ধ না করা হলে নিজেদের প্রতিযোগিতা থেকে ক্লাবগুলিকে বহিষ্কার করা হবে। আর ফিফা বলছে, যে সব ফুটবলার এই প্রতিযোগিতায় খেলবেন, বিশ্বকাপসহ আর কোনো প্রতিযোগিতায় তাদের অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হবে না।

এই সুপার লিগে ইতোমধ্যেই নাম লিখিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা, জুভেন্টাসের মতো ইউরোপের শীর্ষ ক্লাবগুলোর। এদের মাঝে বার্সেলোনা আর জুভেন্তাসে খেলে থাকেন গত এক যুগ ধরে ফুটবলবিশ্বে রাজত্ব করা লিওনেল মেসি আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এই দুজন ছাড়াও অনেক নামীদামি তারকাও খেলবেন সুপার লিগে। তাহলে কি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসিরা বিশ্বকাপ থেকে নির্বাসিত হয়ে যাবেন?

নতুন লিগের সভাপতি হয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ বস ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। সহ-সভাপতি আছেন চার জন। নতুন লিগের দাবি, ক্লাবগুলির মধ্যে অর্থের সমান বন্টন করতে পারছে না উয়েফা। ফলে নিজেদের আর্থিক স্বার্থ দেখতে এবং সমর্থকদের কাছে আরও বেশি মনোগ্রাহী ফুটবল উপহার দিতে নতুন লিগ তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। মোট ২০টি ক্লাব এই লিগে খেলবে। ১২টির সঙ্গে আরও তিনটি ক্লাব যুক্ত হবে। বাকি পাঁচটি ক্লাব যোগ্যতা অর্জন করে আসবে। টুর্নামেন্টের লভ্যাংশের বেশিরভাগ পাবে সেই ১২টি ক্লাব।

এই সুপার লিগে এখনো প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি), বায়ার্ন মিউনিখের মতো বড় ক্লাবগুলো যোগ দেয়নি। এদিক দিয়ে এখনো নিরাপদে আছেন পিএসজির ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমার। তবে নতুন এই লিগের ঘোষণার পর বিশ্বজুড়ে তীব্র বিরোধিতা শুরু হয়েছে। সমালোচনায় সরব হয়েছেন ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এমানুয়েল ম্যাক্রো এবং ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। রিও ফার্ডিনান্ড, গ্যারি নেভিলের মতো সাবেক তারকারাও এর সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।



সাতদিনের সেরা