kalerkantho

শনিবার । ২৫ বৈশাখ ১৪২৮। ৮ মে ২০২১। ২৫ রমজান ১৪৪২

বাবর নয়, ২০১২ যুব বিশ্বকাপে ‘এক নম্বর’ ছিলেন বিজয়

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০১:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবর নয়, ২০১২ যুব বিশ্বকাপে ‘এক নম্বর’ ছিলেন বিজয়

ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে টপকে বুধবার আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করেছেন পাকিস্তানের বাবর আজম। সর্বশেষ প্রকাশিত আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে কোহলির রেটিং পয়েন্ট ৮৫৭, অন্যদিকে বাবর আজমের রেটিং পয়েন্ট ৮৬৫। 

শীর্ষ স্থান দখলের লড়াইয়ে এখন বিরাট কোহলি ও বাবর আজম। ২০০৮ সালে অনূর্ধ্ব -১৯ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কোহলির ক্যারিয়ারটা বাবরের ক্যারিয়ারের চেয়ে লম্বা। বাবর অনূর্ধ্ব - ১৯ বিশ্বকাপ খেলেছিলেন ২০১২ সালে। সে বিশ্বকাপে বাবরকে ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়। সমানসংখ্যক ম্যাচ খেলে বাবরের চেয়ে ৭৮ রান বেশি করে বিজয় হয়েছিলেন বিশ্বকাপের সেরা রানসংগ্রাহক। 

৬ ম্যাচে ৬০.৮৩ গড়ে বিজয় করেছিলেন ৩৬৫ রান। তার স্ট্রাইকরেট ছিল ৮৫.০৮। ১২৮ রানের একটি ইনিংসও খেলেছিলেন তিনি। অন্যদিকে, রান তালিকায় দুইয়ে থাকা বাবরের সংগ্রহ ছিল ২৮৭ রান। তার গড় ছিল ৫৭.৪০ ও স্ট্রাইক রেট ছিল মাত্র ৬৫.৫২। 

বিজয় পরে সুযোগ পেয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলেও। তবে ফর্মহীনতার কারণে দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলের বাইরে। শ্রীঘ্রই হয়তো ফেরাও হবে না তার। এমনকি জাতীয় দলে আর ফিরতে পারেন কিনা সেটারও কোনো নিশ্চয়তা নেই। অন্যদিকে বাবর আজম এখন পাকিস্তানের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক। ওয়ানডেতে বিশ্বের এক নম্বর ব্যাটসম্যান, টেস্টে রয়েছেন সেরা ৬-এ আর টি-টোয়েন্টিতে তৃতীয় স্থানে। অথচ ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে বাবরের চেয়ে বিজয়কেই বেশি প্রতিভাবান মনে করা হতো। বাবর যেখানে বিশ্ব ক্রিকেটে রাজত্ব করছেন তখন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমিরা ভুলতে বসেছে বিজয়ের নাম। প্রতিভার কি দারুণ অপচয়!



সাতদিনের সেরা