kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ বৈশাখ ১৪২৮। ৭ মে ২০২১। ২৪ রমজান ১৪৪২

লিভারপুলকে বিদায় করে সেমিতে রিয়াল, প্রতিপক্ষ চেলসি

অনলাইন ডেস্ক   

১৫ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:২৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



লিভারপুলকে বিদায় করে সেমিতে রিয়াল, প্রতিপক্ষ চেলসি

প্রথম লেগে দুই গোলে পিছিয়ে থাকা সেমিতে খেলতে লিভারপুলকে ঘরের মাঠে জিততে হতো অন্তত দুই গোলের ব্যবধানে। সেই চেষ্টা ম্যাচের শুরু থেকেই করে গেল ইয়ূর্গেন ক্লপের দল। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের জমাট রক্ষণের বিপক্ষে একটা গোলও আদায় করতে পারেননি মোহাম্মদ সালাহ, সাদিও মানেরা। ফলে প্রথম লেগের ফলাফলই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে তুলে দিল জিনেদিন জিদানের দলকে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) অ্যানফিল্ডে লিভারপুল-রিয়াল মাদ্রিদের লড়াইটা গোলশূন্য ড্র হয়েছে। ফলে প্রথম লেগে ৩-১ গোলে এগিয়ে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ ওই ব্যবধানেই সেমিফাইনালের টিকিট পেয়েছে।

দুই গোলে পিছিয়ে থাকা ঘরের মাঠে শুরু থেকেই গোলের উদ্দেশ্যে আক্রমণাত্ম ফুটবল খেলেছে অলরেডরা। অপর দিকে গোলের চিন্তা বাদ দিয়ে রক্ষণে চীনের মহাপ্রাচীর গড়ে তুলতে চেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ! ৫৬ শতাংশ বলের দখল ধরে রেখে লিভারপুল গোলবার লক্ষ্যে শট নিয়েছে ১১টি, অপর দিকে রিয়াল পুরো ম্যাচে শট নিয়েছে মাত্র ৩টি। তবে জালের ঠিকানা খুঁজে পায়নি কোন দলই।

খেলার দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত লিভারপুল। সাদিও মানের কাছ থেকে বিপজ্জনক জায়গায় বল পান মোহামেদ সালাহ। সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। পা দিয়ে তার শট ঠেকিয়ে দেন থিবো কোর্তোয়া। একাদশ মিনিটে আবার সুযোগ আসে স্বাগতিকদের সামনে। এবার জেমস মিলনারের ক্রসবার ঘেঁষে আসা শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ব্যর্থ করে দেন রিয়াল গোলরক্ষক।

লিভারপুলের আক্রমণের ঝাপটা সামলে ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নেয় রিয়াল। ম্যাচের গতি কমিয়ে রাখার দিকেই ছিল তাদের মনোযোগ। ২০তম মিনিটে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল দলটি। করিম বেনজেমার শট তুরস্কের ডিফেন্ডার ওজান কাবাকের পা ছুঁয়ে দিক পাল্টে পোস্টে লেগে ফেরে।

৪০ মিনিটে আবারও সুযোগ মিস করেছেন সালাহ। সুবিধাজনক স্থানে বল পেয়েও ভালো শট নিতে পারেননি মিশরীয় তারকা। পরের মিনিটে খুব কাছ থেকে উড়িয়ে মেরে সুযোগ হাতছাড়া করেন জর্জিনিয়ো ভেইনালডাম।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডকে হতাশ করেছেন কোর্তোয়া। ৬৬ মিনিটে রিয়ালের ভিনিসিয়ুস জুনিয়রকে গোলবঞ্জিত করেন লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিসন। শেষ দিকে গোলের জন্য মরিয়া লিভারপুল নিজেদের অর্ধ ছেড়ে উঠেছিল। অনেকটা সময় রিয়ালের অর্ধেই ছিলেন ২১ জন খেলোয়াড়। তবে চাপের মধ্যেও ভেঙে পড়েনি স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। ঠাণ্ডা মাথায় সামাল দিয়েছে সব আক্রমণ। জায়গা করে নিয়েছে শেষ চারে। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ চেলসি।

দিনের অন্য ম্যাচে বরুশিয়া ডর্টুমুন্ডকে আবারও হারিয়ে পেপ গার্দিওলার কোচিংয়ে প্রথমবারের মতো সেমি-ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। দুই লেগেই ইংলিশ ক্লাবটি জেতে ২-১ ব্যবধানে। ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষে ফরাসি চ্যাম্পিয়ন পিএসজি।



সাতদিনের সেরা