kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

ত্রিনিদাদের রাজপুত্রের ৪০০ রানের দিন আজ

অনলাইন ডেস্ক   

১২ এপ্রিল, ২০২১ ১৮:০১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ত্রিনিদাদের রাজপুত্রের ৪০০ রানের দিন আজ

আজ থেকে ১৭ বছর আগের কথা। উইন্ডিজ সফরে এসেছে মাইকেল ভনের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড। ৪ টেস্টের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে সফরকারীরা। ঘরের মাঠে অতিথিদের সামনে পাত্তাই পাচ্ছিল না ব্রায়ান লারার উইন্ডিজ। অনেকেই ভাবছিলেন, একসময়ের পরাক্রমশালী দলটি হয়তো এবার দেশের মাটিতেই ধোলাই হতে যাচ্ছে। কিন্তু সেটা হয়নি। বরং চতুর্থ ম্যাচে অবাক বিস্ময়ে ক্রিকেট বিশ্ব দেখেছে ত্রিনিদাদের রাজপুত্রের ইতিহাস গড়ার দৃশ্য। 

২০০৪ সালের ১০ এপ্রিল সেন্ট জনসে শুরু হয়েছিল ক্রিকেট ইতিহাসের বিখ্যাত ওই টেস্টটি। টস জিতে সোজা ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন লারা। ক্রিস গেইল (৬৯) আর ড্যারেন গঙ্গার (১০) ওপেনিং জুটিটা বড় হয়নি। তিন নম্বরে নেমে ব্রায়ান লারা শুরু করেন ইতিহাস গড়ার কাজ। টানা দুই দিন খেলে, ৭৭৮ মিনিট ক্রিজে থেকে, ৫৮২ বল মোকাবেলা করে ১২ এপ্রিল ত্রিনিদাদের রাজপুত্র উপহার দেন অপরাজিত ৪০০ রানের ইনিংস। যা এখন পর্যন্ত টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস! ১৭ বছরেও কেউ ভাঙতে পারেনি। 

লারার ইনিংসে ছিল ৪৩টি বাউন্ডারি আর ৪টি ওভার বাউন্ডারি। এই ইনিংসের মাহাত্ম্য বলে শেষ করা যাবে কি? ১০ বছর আগে একই মাঠে তিনি খেলেছিলেন ৩৭৫ রানের ইনিংস। ১০ বছর পরেই তার সেই রেকর্ড ভেঙে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাথু হেইডেন করেন ৩৮০। হেইডেনের থেকে রেকর্ড হারানোর ৬ মাসের মাথায় সেই একই মাঠ সেন্ট জনসের উইকেটে দাঁড়িয়ে, একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ৪০০ রান করে ফেলেন লারা! যে রেকর্ড ১৭ বছর ধরে অক্ষত আছে। 

আগের দিন ৩১৩ রানে অপরাজিত ব্রায়ান লারা মাঠ ছাড়েন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেছিলেন, নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়া তার কাছে দূরের মনে হচ্ছে না। তবে এটা নিয়ে কোনো টেনশন নেই। রাতে ভালো ঘুম দিয়ে সকালে উঠে মাঠের কথা ভাববেন। তারও আগে হেইডেনের কাছে রেকর্ড হারিয়ে বলেছিলেন, 'ঘাড় থেকে বোঝা নামল'। মাত্র ছয় মাসের মাঝেই লারা নিজের কাঁধে এমন বোঝাই চাপালেন, যা তাকে দিয়ে দিল অমরত্ব। প্রথম ইনিংসে ঠিক ৪০০* রানে অপরাজিত ছিলেন লারা। ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ড্র হয়েছিল।



সাতদিনের সেরা