kalerkantho

শুক্রবার। ৩১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ মে ২০২১। ০২ শাওয়াল ১৪৪২

রেকর্ড গড়ে জিতল পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক   

১১ এপ্রিল, ২০২১ ০১:৫৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



রেকর্ড গড়ে জিতল পাকিস্তান

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১৮৯ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর তাড়া করতে নেমে রেকর্ড গড়া জয়ে এগিয়ে গেল বাবর আজমের দল। বাবর আজমরা ৪ উইকেটের এই জয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে এগিয়ে গেল।

শনিবার জোহানেসবার্গের দ্য ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে টস জিতে ৩৬ রানে দুই উইকেট হারানো দক্ষিণ আফ্রিকা তিন উইকেটে করে ১৫৯ রান। এরপর ১২ রানের ব্যবধানে হারায় তিন উইকেট। দলের হয়ে ২৮ বলে দুই চার ও চার ছক্কায় সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন অধিনায়ক হেনরি ক্লেসেন। ৩২ বলে আট চার ও এক ছক্কায় ৫১ রান করেন ওপেনার অ্যাইডেন মার্কওরাম। ২৪ বলে ৩৪ রান করেন বিলজোয়েন।

জয়ের টার্গেট তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৪.৫ ওভারে ৪১ রান করে ফেরেন অধিনায়ক বাবর আজম (১৪)। এরপর ফখরজামানকে সঙ্গে নিয়ে ফের ৪৫ রানের জুটি গড়েন অন্য ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। ১৯ বলে ২৭ রান করে ফেরেন ফখর। 
মোহাম্মদ হাফিজ (১৩) দলীয় ১১০ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরেন। তিন উইকেটে ১৩২ রান করা পাকিস্তান এরপর দুই বলে ২ উইকেট হারিয়ে চাপের মধ্যে পড়ে যায়।

তবে শুরু থেকেই দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখিয়ে যান ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। শেষদিকে তাকে সঙ্গ দেন ফাহিম আশরাফ। ষষ্ঠ উইকেটে মাত্র ২৪ বলে ৪৮ রানের জুটি গড়েন তারা। জয়ের জন্য শেষ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ১১ রান। ২০তম ওভারের প্রথম বলে ডবল রান নিয়ে দ্বিতীয় বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন ফাহিম আশরাফ। তার আগে চারটি চার ও এক ছক্কায় ৩০ রান করেন মাত্র ১৪ বলে।

তৃতীয় বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলের জয় সহজ করেন নতুন ব্যাটসম্যান হাসান আলী। পরের বলে নেন ডাবল রান। জয়ের জন্য শেষ দুই বলে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৩ রান। পঞ্চম বলে মিস ফিল্ডিংয়ের কারণে দুই রানের পর তৃতীয় রান নিয়ে হাসান আলী ও মোহাম্মদ রিজওয়ানরা জয় নিশ্চিত করেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২০ ওভারে ১৮৮/৬ (মালান ২৪, মারক্রাম ৫১, লুবে ৪, ক্লাসেন ৫০, বিলিয়োন ৩৪, লিন্ডে ৬, ফেলুকওয়ায়ো ৯*, মাগালা ৯*; আফ্রিদি ৪-০-৪৫-১, নওয়াজ ৪-০-২১-২, হাসান ৪-০-২৮-২, উসমান ৩-০-৩৮-০, রউফ ৩-০-৩৭-১, ফাহিম ২-০-১৮-০)।

পাকিস্তান: ১৯.৫ ওভারে ১৮৯/৬ (রিজওয়ান ৭৪*, বাবর ১৪, ফখর ২৭, হাফিজ ১৩, হায়দার ১৪, নওয়াজ ০, ফাহিম ৩০, হাসান ৯*; লিন্ডে ৩-০-৩১-০, উইলিয়ামস ৩.৫-০-৩৯-১, হেনড্রিকস ৪-০-৩২-৩, মাগালা ৩-০-৩৫-০, শামসি ৪-০-২৯-২, ফেলুকওয়ায়ো ২-০-২১-০)।

ফল: পাকিস্তান ৪ উইকেটে জয়ী।

সিরিজ: ৪ টি-টোয়েন্টির সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে পাকিস্তান।

ম্যান অব দা ম্যাচ: মোহাম্মদ রিজওয়ান।



সাতদিনের সেরা