kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ বৈশাখ ১৪২৮। ৭ মে ২০২১। ২৪ রমজান ১৪৪২

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস

সেনাবাহিনীর সাইক্লিস্টদের নতুন ৬ রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক   

৪ এপ্রিল, ২০২১ ২২:০৭ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সেনাবাহিনীর সাইক্লিস্টদের নতুন ৬ রেকর্ড

সেনাবাহিনী সাইক্লিং দল ১৬টি ইভেন্টে ১৩টি স্বর্ণপদক, ৩টি রৌপ্য ও ৫টি ব্রোঞ্জ অর্জন করেন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে “বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস্ ২০২০’ সাইক্লিং এ সেনাবাহিনী সাইক্লিং দল ১৬টি ইভেন্টে ১৩টি স্বর্ণপদক, ৩টি রৌপ্য ও ৫টি ব্রোঞ্জ অর্জন করেন। এর মধ্যে রয়েছে সেনাবাহিনীর সাইক্লিষ্টদের নতুন ৬টি রেকর্ড।

১০০০ মিটার টাইম ট্রায়ালে সৈনিক ফয়সাল (১:২০:৪০) সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন, ১২০০ মিটার অলিম্পিক স্প্রিন্ট (পুরুষ) এ সৈনিক সৈনিক ফয়সাল, সৈনিক মুক্তাদুর, সৈনিক আলমগীর (১ঃ৩৬ঃ২২) সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন, ৮০০ মিটার অলিম্পিক স্প্রিন্ট (মহিলা) এ ল্যান্স কর্পোরাল শিল্পি খাতুন ও সৈনিক সমাপ্তি বিশ্বাস (১ঃ১০ঃ৯৬) সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন, ২০০০ মিটার ইন্ডিভিজুয়াল রেসে (মহিলা) সৈনিক সুবর্ণা (৩ঃ১৭ঃ০৩) সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন, ১০০০ মিটার স্প্রিন্ট (পুরুষ) এ সৈনিক বিশ্বাস ফয়সাল হোসাইন (০০ঃ১৩ঃ৬০) সেকেন্ড সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন এবং ১০০০ মিটার স্প্রিন্ট (মহিলা) ইভেন্টে ল্যান্স কর্পোরাল শিল্পি খাতুন (০০ঃ১৬ঃ০২) সেকেন্ড সময় নিয়ে রেকর্ড সৃষ্টি করে স্বর্ণপদক জয়লাভ করেন।

সেনাবাহিনীর অপ্রতিরোধ্য রাগবি দল গত ২ এপ্রিল ২০২১ তারিখে রংপুর জেলার বিপক্ষে প্রথম গ্রুপ পর্যায়ে খেলতে নেমে প্রথমেই সেনাবাহিনী রাগবি দল ৪০-০০ পয়েন্টে রংপুর জেলাকে পরাজিত করে। গত ৩ এপ্রিল ২০২১ তারিখে সেনাবাহিনী রাগবি দল ৬২-০০ পয়েন্টে জয়পুরহাট জেলাকে পরাজিত করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। অদ্য ৪ এপ্রিল ২০২১ তারিখে সেনাবাহিনী রাগবি দল বাংলাদেশ আনসারকে ৪৩-০০ পয়েন্টে পরাজিত করে ফাইনাল নিশ্চিত করে এবং এই দিনে অনুষ্ঠিত ঢাকা জেলার বিপক্ষে ৪২-০০ পয়েন্টে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী জযলাভ করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

এ্যাথলেটিক্স এর ২০ কিঃ মিঃ হাটা ইভেন্টের স্বর্ণ, রৌপ্য ও তাম্র তিনটি পদকই বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এ্যাথলেটিক্স দলের ঝুলিতে। সেনাবাহিনী দল এ্যাথলেটিক্স এর ম্যারাথন (৪২.১৯৫ কিঃ মিঃ), ৪০০ মিটার নিচু হার্ডেলস্, ৪প্ত১০০ মিটার রিলে (পুরুষ), ১৫০০ মিটার দৌড় (পুরুষ), ৩০০০ মিটার ষ্টিপুল চেজ (পুরুষ), ২০ কিঃ মিঃ হাটা, জ্যাভলিন থ্রো (পুরুষ), পোল ভল্ট (পুরুষ), হাই জাম্প (মহিলা), জ্যাভলিন থ্রো (মহিলা) ইভেন্ট সমূহে সেনাবাহিনী ১০টি স্বর্ণপদক অর্জন করেন।

সেনাবাহিনী সাঁতার দলের সাঁতারু ল্যান্স কর্পোরাল মোঃ জুয়েল আহম্মেদ ২০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোক ইভেন্টে (০২ঃ১৫ঃ৮৩) সেকেন্ড সময় নিয়ে নতুন জাতীয় রেকর্ড সৃষ্টি করে স্বর্ণ পদক এবং ১৫০০ মিটার ফি স্টাইলে সৈনিক ফয়সাল আহম্মেদ স্বর্ণপদক জয়লাভ করেন। এছাড়া সেনাবাহিনী সাঁতার দল ওয়াটার পোলো ইভেন্টে বাংলাদেশ পুলিশকে ১০-০১ গোলে পরাজিত করে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে।

শ্যূটিং এর ১০ মিটার এয়ার পিস্তল (সিনিয়র) ইভেন্টে সকল সার্ভিসেস/সংস্থাকে পেছনে ফেলে স্বর্ণ, রৌপ্য, তাম্র  তিনটি পদকই বাংলাদেশ সেনাবাহিনী শ্যূটিং দল অর্জন করেছে। সেনাবাহিনীর শ্যূটার ল্যান্স কর্পোরাল ইউসুফ আলী নৌবাহিনীর শ্যূটিং দলের শ্যূটার আব্দুল্লাহিল বাকি’কে হারিয়ে ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে স্বর্ণপদক জয় করেন। এছাড়া ২৫ মিটার রিপিট পিস্তল পুরুষ (সিনিয়র) ইভেন্টে সৈনিক রায়হানুল ইসলাম ০১টি স্বর্ণ, ৫০ মিটার ফ্রী রাইফেল ৩ পজিশন মহিলা সিনিয়র এ সৈনিক আতকিয়া হাসান দিশা ০১টি স্বর্ণপদক এবং ১০ মিটার এয়ার পিস্তল মহিলা ইভেন্টে সেনাবাহিনীর অ”িলা আমজাদ সবাইকে হারিয়ে ০১টি স্বর্ণপদক জয়লাভ করেন।

সেনাবাহিনীর ফুটবল দল গ্রুপ পর্যায়ের প্রথম খেলায় পাবনা জেলা অংশগ্রহণ না করাই সম্পুর্ণ পয়েন্ট লাভ করে সেনাবাহিনী দল। এছাড়া খলনা ফুটবল দলের বিপক্ষে সেনাবাহিনী ফুটবল দল ০৬-০১ গোলে জয়লাভ করে এবং নেত্রকোনা ফুটবল দলের বিপক্ষে ০৩-০০ গোলে জয়লাভ করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে সেনাবাহিনী ফুটবল দল।



সাতদিনের সেরা