kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

আমলা-কোহলিকে টপকে বাবর আজমের বিশ্বরেকর্ড!

অনলাইন ডেস্ক   

৩ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আমলা-কোহলিকে টপকে বাবর আজমের বিশ্বরেকর্ড!

শতরানের পর বাবর আজম। ছবি- টুইটার।

পাকিস্তান দল তখন ব্যাটিংয়ে। উইকেটে বাবর আজম। পাকিস্তানের খ্যাতিমান ক্রিকেট-পরিসংখ্যানবিদ মাজহার আরশাদের টুইট, ‘বাবর আজমের ড্রাইভের সময় পৃথিবী থেমে যায়।’ সত্যি, তাঁর দৃষ্টিনন্দন কাভার ড্রাইভ ক্রিকেটপ্রেমীর কাছে মনোলোভা। সেঞ্চুরিয়নে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে গতকাল (০২ এপ্রিল) সেঞ্চুরি করে পাকিস্তানের ৩ উইকেটের জয়ে ‘নিউক্লিয়াস’ হয়ে ওঠা বাবরকে নিয়ে তাই মেতে ছিলেন পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

দলের জয়ের পাশাপাশি এই সেঞ্চুরিতে হাসিম আমলা, বিরাট কোহলিদের টপকে অনবদ্য এক বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন বাবর আজম। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৩ নম্বর সেঞ্চুরির পথে বাবর সাবেক প্রোটিয়া তারকা হাসিম আমলার একটি রেকর্ড ভেঙে দেন তিনি। পাক অধিনায়ক দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৩টি সেঞ্চুরি করার নজির গড়েন।

বাবর ৭৬টি ইনিংসে ১৩টি ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেন। আমলা ১৩টি সেঞ্চুরি করেছিলেন ৮৩টি ওয়ানডে ইনিংসে। বিরাট কোহলি ও কুইন্টন ডি'কক ১৩টি ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেন ৮৬টি করে ইনিংসে।

সেঞ্চুরিয়নে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। নির্ধারিত ৫০ ওভারে তারা ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৭৩ রান তোলে। ভ্যান ডার দাসেন ১২৩ রান করেন। এছাড়া মার্করাম ১৯, কুইন্টন ডি'কক ২০, ডেভিড মিলার ৫০ রান করেন। শাহীন আফ্রিদি ও হ্যারিস রউফ ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান শেষ বলের থ্রিলারে জয় নিশ্চিত করে। ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ২৭৪ রান তুলে নেয় তারা। অধিনায়ক বাবর আজম ১০৩ রান করে আউট হন। ইমাম-উল-হক করেন ৭০ রান। মুহাম্মদ রিজওয়ান ৪০ ও শাদাব খান ৩৩ রান করে দলের জয়ে অবদান রাখেন। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে দিল্লি ক্যাপিটালসের নরকিয়া ৫১ রানে ৪ উইকেট দখল করেন। যদিও তাঁর দুরন্ত বোলিংও হার বাঁচাতে পারেনি প্রোটিয়াদের। ম্যাচের সেরা হয়েছেন বাবর।



সাতদিনের সেরা