kalerkantho

শুক্রবার । ৪ আষাঢ় ১৪২৮। ১৮ জুন ২০২১। ৬ জিলকদ ১৪৪২

একজনের গুঁতো খেয়ে অন্যজনের ওপর শোধ নিয়েছিলেন মেসি!

অনলাইন ডেস্ক   

২ এপ্রিল, ২০২১ ১৬:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



একজনের গুঁতো খেয়ে অন্যজনের ওপর শোধ নিয়েছিলেন মেসি!

বার্সেলোনা হোক আর আর্জেন্টিনা- প্রতিপক্ষে সবচেয়ে বড় টার্গেট থাকে লিওনেল মেসিকে আটকে রাখা। তার পেছনেই তিনজন ফুটবলার লেলিয়ে দেওয়া হয়। তারা টেনে ধরে, গুঁতো মেরে, ফাউল করে কিংবা যেভাবেই হোক মেসিকে আটকে রাখতে চেষ্টা করে। সেই দুর্ভেদ্য ব্যুহ ভেদ করে গোল করেন ফুটবল জাদুকর। এভাবেই তিনি গত দেড় দশক ধরে শীর্ষ পর্যায়ে খেলছেন। এত বছর সহ্য করতে করতে মেসি এবার হয়তো একটু অধৈর্য্য হয়ে গেলেন।

২০১৮-১৯ মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের মুখোমুখি বার্সলোনা। মেসিকে আটকাতে বেশ কয়েকবার গুঁতো মারেন স্মলিং। একবার তো মুখে গুঁতো মেরে রক্ত বের করে দেন! বারবার একই ঘটনা ঘটায় শান্ত স্বভাবের মেসি এক পর্যায়ে তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন। সেই ম্যাচে আর কিছু হয়নি। দ্বিতীয় লেগে সেই রাগ পুষে রেখেছিলেন মেসি। তবে সেদিন ভুল করে তিনি রাগ ভুলে ঝেড়ে বসেন মিডফিল্ডার স্কট ম্যাকটমিনের ওপর! যিনি মেসিকে কিছু করেননি!

খেলা শেষে ম্যাকটমিন মেসির জার্সি চাইলে তিনি দেননি। বরং দুই কথা শুনিয়ে দেন। সম্প্রতি ইএসপিএনকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এই মজার ঘটনাটা বলেছেন ম্যাকটমিনে, 'সের্হিও ফেরত এসে আমাকে বলল, মেসি ভাবছে প্রথম লেগে তুমি তাকে গুঁতো মেরেছ। তখন আমি বললাম, না না না না। ওই কাজ আমি করিনি। স্মলিংয়ের কাজ! তাকে বলে এসো, ওই কাজটা আমি করিনি। আর ওর জার্সিটা নিয়ে এসো, আমি আমার শোবার ঘরে রাখব। এখন মেসি জানে আমি সেই কাজটা করিনি!'



সাতদিনের সেরা