kalerkantho

শনিবার । ২৫ বৈশাখ ১৪২৮। ৮ মে ২০২১। ২৫ রমজান ১৪৪২

বোর্ড কর্তাদের নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য

আটকে যেতে পারে সাকিবের আইপিএল খেলা!

অনলাইন ডেস্ক   

২২ মার্চ, ২০২১ ০৭:৩০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আটকে যেতে পারে সাকিবের আইপিএল খেলা!

ফাইল ছবি।

বিসিবি কর্মকর্তাদের নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে ফেঁসে যাচ্ছেন সাকিব আল হাসান। ফেসবুকে এক লাইভ অনুষ্ঠানে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার যেসব মন্তব্য করেছেন তাতে অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে গেছে তার আইপিএল খেলাও।

রবিবার সন্ধ্যায় বিসিবি (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড) প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপনের গুলশানের বাসায় এক জরুরি সভায় সাকিবের মন্তব্য নিয়ে আলোচনা হয়।

সভাশেষে বোর্ডের দুই পরিচালক আকরাম খান ও নাইমুর রহমান দুর্জয় সাংবাদিকদের জানান, আইপিএল খেলতে সাকিবকে যে অনাপত্তিপত্র দেওয়া হয়েছে, তা পুনর্বিবেচনা করা হবে। সেই সঙ্গে সাকিব শ্রীলঙ্কা সফরে যেতে চাইলেও সুযোগ থাকবে।

ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির প্রধান আকরাম খান জানালেন সাকিবের ওপর সে খড়্গ নেমে আসার আশঙ্কার কথা। দেশের হয়ে টেস্ট খেলতে চান না বলে যে প্রচার সাকিবকে নিয়ে, সে জন্য এই অলরাউন্ডার ফেসবুক লাইভে মূলত আকরামকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ‘আকরাম ভাই আমার চিঠি পড়েনইনি। কোথাও বলিনি যে আমি টেস্ট খেলতে চাই না। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ প্রস্তুতির জন্য আইপিএল খেলতে চেয়েছি।’ বোর্ডের কাছে এখন সাকিবের বক্তব্যের অর্থ এ রকমই যে তিনি টেস্ট খেলতে চান।

আইপিএল খেলার জন্য এনওসি (অনাপত্তিপত্র) পুনর্বিবেচনার সিদ্ধান্তও সে কারণেই নেওয়া হয়েছে বলে জানালেন আকরাম, ‘অনেক কথার মধ্যে একটি কথা শুনেছি যে ও চিঠি দিয়েছে। এবং আমি নাকি সেই চিঠি পড়িনি। আজকে আপনারা অনেকে ফোন করেছেন। ঠিক আছে, আমি হয়তো ভুল বুঝতেও পারি। ওর কথায় যেহেতু বোঝা যাচ্ছে ও টেস্ট খেলতে চাচ্ছে, কাল-পরশু বোর্ডের সবার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে ওর এনওসির বিষয়ে আমরা চিন্তা করব। ওর যদি টেস্ট খেলার বিষয়ে আগ্রহ থাকে, তাহলে শ্রীলঙ্কায় যাবে এবং টেস্ট খেলবে। বাকি বিষয়গুলো বোর্ডে গিয়ে দেখে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত হবে।’ সেই সঙ্গে তিনি আরো যোগ করেছেন, ‘আমার দায়িত্ব তো শুধু সাকিবকে নিয়ে নয়, পুরো বাংলাদেশ দলকে নিয়েই। আমি এত বড় একটি দায়িত্বে আছি এবং অনেক দিন থেকেই। এখন ও যদি মনে করে থাকে আমি চিঠি পড়িনি... ওটাই বললাম। আমরা তো শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছি দুটো টেস্ট খেলতেই। সেখানে আমাদের ওয়ানডেও নেই, টি-টোয়েন্টিও নেই। যেহেতু ও নিজেই বলেছে...। ও যদি টেস্ট খেলতে চায়, খেলবে। সে ক্ষেত্রে আমরা ওর এনওসি নিয়ে চিন্তা করব।’

সাকিবের বক্তব্যে অসন্তোষ প্রকাশ করে বিসিবির হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের প্রধান নাঈমুর রহমান দুর্জয় জানান, কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হলে সেই সিদ্ধান্ত আসবে বোর্ডসভা থেকে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে দুর্জয় বলেন, 'আমার জানামতে বোর্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত বা বর্তমান কোনো খেলোয়াড় বোর্ডের বিরুদ্ধে এভাবে বলতে পারে না। সেক্ষেত্রে হয়তো বোর্ড সভায় আলাপ করে ঠিক করব।'

চুক্তিবদ্ধ একজন ক্রিকেটার হিসেবে বোর্ডের বিপক্ষে কেউ এমন অভিযোগ তুলতে পারে কিনা, এই প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, 'সেটা বলতে পারে কি পারে না, আইনি ইস্যু আছে। এগুলো আলাপ-আলোচনা করে এরপর বোর্ডের বক্তব্য জানানো হবে। ' 



সাতদিনের সেরা