kalerkantho

রবিবার। ৫ বৈশাখ ১৪২৮। ১৮ এপ্রিল ২০২১। ৫ রমজান ১৪৪২

এই ম্যাচ থেকে 'শিক্ষা' নেওয়ার কিছু নেই : তামিম

অনলাইন ডেস্ক   

২০ মার্চ, ২০২১ ১৮:৫৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এই ম্যাচ থেকে 'শিক্ষা' নেওয়ার কিছু নেই : তামিম

আজ প্রথম ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটে পরাজিত হওয়ার পর সিরিজে ঘুড়ে দাঁড়াতে টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের আরো দায়িত্ব নিয়ে সাহসী ব্যাটিংয়ের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তার দাবি, বাংলাদেশ ১৩০ রানে অল-আউট হওয়ার মতো দল নয়। ব্যাটসম্যানরা নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর ধারে কাছে ছিল না। যে কারণে প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ১৩১ রানে অল-আউট হয় টাইগাররা।

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে খেলার অভিজ্ঞতা থেকে বাংলাদেশ দল জানত, ভালো করার জন্য প্রথম ১০-১৫ ওভার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তামিমসহ দলের টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানরা উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এসেছেন। ব্যাটসম্যানদের পারফরমেন্সে হতাশ হয়েছেন সমর্থকরা। কারণ বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় খেলা থাকায়, অনেকেই ম্যাচ দেখতে ভোরে ঘুম থেকে উঠেছিলেন। এমন বাজে খেলা দেখে সমর্থকেরা সোশ্যাল সাইটে বিরক্তি আর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

আজ ম্যাচ শেষে ডানেডিন থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পাঠানো রেকর্ড করা ভিডিও বার্তায় তামিম বলেন, 'আমরা ৩/৪ জন বাজেভাবে আউট হয়েছি। যা আমরা প্রত্যাশা করি না। প্রথম দিকে সুইং, বাউন্স ছিল এবং গতি ছিল, তবে এসব কিছু নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে প্রত্যাশিতই ছিল। যেই পরিস্থিতিই হোক, আমরা ১৩০ (আসলে ১৩১ রান) রান করার মতো দল নই। আমরা আমাদের ব্যাটিং নিয়ে সর্বদা গর্ব করি। যদি আমরা এখানে ভালো করতে চাই, তবে অন্তত ২৭০-২৮০ রান করতে হবে।'

তামিমের আশা ব্যাটসম্যানরা ভুল থেকে শিক্ষা নেবে এবং সিরিজের বাকি ম্যাচগুলোতে ব্যাটসম্যানরা জ্বলে উঠবে, 'আমাদের এই ট্রমা থেকে বেরিয়ে আসা দরকার। আমাদের ২৬০ রানের বেশি করার উপায় খুঁজে বের করতে হবে। ডিফেন্ড করার জন্য বোলারদের কিছু দিতে হবে। প্রথম পাঁচ জনের মধ্যে একজন ব্যাটসম্যানকে বড় ইনিংস খেলতে হবে। অন্তত যদি একজনও বড় ইনিংস খেলতে না পারে, তবে বড় স্কোর করা সম্ভব নয়। আমি আশা করি, পরের ম্যাচে টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানরা দায়িত্ব নিয়ে খেলবে।'

যে কোনো ম্যাচ বাজেভাবে হারলেই বাংলাদেশের অধিনায়কদের বলতে শোনা যায়, 'এই ম্যাচ থেকে শিক্ষা নিয়ে পরের ম্যাচে ভালো করব।' তবে আজ তামিম জানান, ৮ উইকেটে হেরে যাওয়া প্রথম ওয়ানডে থেকে কিছুই শিক্ষা নেওয়ার প্রয়োজন নেই। তামিমের ভাষায়, 'সত্যি কথা বলতে, এই ম্যাচ থেকে কিছুই নেওয়ার দরকার নেই। আপনি যদি এখান থেকে ইতিবাচক কিছু জানতে চান তবে, এটি ছিল মেহেদি হাসানের ছয় ওভার স্পেল। অন্যথায় আমি এই ম্যাচ থেকে ইতিবাচক কিছু দেখতে পাচ্ছি না।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা