kalerkantho

শনিবার । ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১২ জুন ২০২১। ৩০ শাওয়াল ১৪৪২

ঘরের মাঠে দুর্বল নঁতের কাছে হেরেছে এমবাপ্পে-ডি মারিয়ারা

অনলাইন ডেস্ক   

১৫ মার্চ, ২০২১ ০৯:২৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঘরের মাঠে দুর্বল নঁতের কাছে হেরেছে এমবাপ্পে-ডি মারিয়ারা

এদিন নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। ছবি: সংগৃহীত

কিলিয়ান এমবাপ্পে, ইউলিয়ান ড্রাক্সলার, লিয়ান্দ্রো পারেদেস, আনহেল ডি মারিয়া—এই তারকাদের নিয়েও ঘরের মাঠে অবনমন অঞ্চলের দল নঁতের কাছে হেরে লিগ শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে আরো পিছিয়ে পড়ল পিএসজি। অথচ এই তারকাদের নিয়ে দুনিয়ার যেকোনো দলকেই বলেকয়ে হারানো যায়।

রবিবার (১৪ মার্চ) রাতে পার্ক ডি প্রিন্সেসে লিগ ওয়ানের ম্যাচে প্রথমার্ধে এগিয়ে যাওয়া পিএসজি ২-১ গোলে হেরেছে। ইউলিয়ান ড্রাক্সলারের গোলে পিছিয়ে পড়ার পর সমতা টানেন কোলো মুয়ানি। পরে মোজেস সিমোনের গোলে দারুণ জয় নিয়ে ফেরে নঁত।

এই হারে টেবিলের শীর্ষে থাকা লিলকে পয়েন্টের হিসেবে ছোঁয়ার সুযোগ হারাল পিএসজি। ২৯ ম্যাচে লিলের পয়েন্ট ৬৩। সমান ম্যাচে ৩ পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল।

এবারের লিগ ওয়ানে এই নিয়ে সপ্তম হারের স্বাদ পেল পিএসজি, ঘরের মাঠে চতুর্থ। দুই রাউন্ড আগে মোনাকোর বিপক্ষেও নিজেদের মাঠে হেরেছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠা দলটি।

প্রথমার্ধে ৭৫ শতাংশের বেশি সময় বল দখলে রেখে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে পিএসজি। তবে গোলপোস্টে নঁতের আলবোঁ লাফুঁর দেয়াল ভাঙতে পারছিল না তারা। ৪০ মিনিটের আগে পাঁচটি দারুণ সেভ করেন তিনি। এর মধ্যে সেরা সুযোগটি পান কিলিয়ান এমবাপ্পে; তার শটটি দারুণ ক্ষিপ্রতায় পা দিয়ে ঠেকান ফরাসি এই গোলরক্ষক।

অবশেষে ৪২তম মিনিটে গোলের অপেক্ষা শেষ হয় চ্যাম্পিয়নদের। এ যাত্রায় নঁতের রক্ষণ বল বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে বাঁ পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন জার্মান মিডফিল্ডার ড্রাক্সলার।

তবে এগিয়ে যাওয়ার এই আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি পিএসজির। বিরতির পর খেলার ধারার বিপরীতে ঘুরে দাঁড়ায় নঁত। ৫৯তম মিনিটে ডি-বক্সের মধ্যে থেকে সমতা টানেন তরুণ ফরাসি ফরোয়ার্ড মুয়ানি। ১২ মিনিট পর তার পাস থেকে দলকে এগিয়ে নেন সিমোন।

ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য এরপরও যথেষ্ট সময় ছিল পিএসজির। যোগ করা সময়ও পেয়েছিল সাত মিনিট! কিন্তু কিছুই করতে পারেনি তারা।

অবশ্য এই জয়টি দারুণ স্বস্তিদায়ক ছিল নান্টেসের জন্য। পূর্ণ ৩ পয়েন্ট পেয়ে ২৯ ম্যাচ থেকে ২৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করে রেলিগেশন লাইন থেকে পয়েন্ট টেবিলের ১৮তম অবস্থানে উঠে এসেছে তারা।

২৯ ম্যাচ থেকে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে লিঁলে। সমান ম্যাচ থেকে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে পিএসজি। লিঁয়ন ৬০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকে তপ্ত নিঃশ্বাস ছাড়ছে পিএসজির ঘাড়ে। ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে মোনাকো আছে চতুর্থ স্থানে।



সাতদিনের সেরা