kalerkantho

শুক্রবার । ১০ বৈশাখ ১৪২৮। ২৩ এপ্রিল ২০২১। ১০ রমজান ১৪৪২

বড় স্কোর গড়েও বাংলাদেশের সাবেকদের আরেকটি হার

অনলাইন ডেস্ক   

১৩ মার্চ, ২০২১ ১০:৩১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বড় স্কোর গড়েও বাংলাদেশের সাবেকদের আরেকটি হার

ছন্দে থাকা নাজিমউদ্দিন আবারো ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলেন। ভালো করলেন মেহরাব হোসেন অপি, আফতাব আহমেদ, মোহাম্মদ শরিফরা। টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো দেড়শ ছাড়ানো সংগ্রহ পেল বাংলাদেশ লেজেন্ডস। তবে ভালো পুঁজি পেয়েও ফের পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে বাংলাদেশের সাবেকদের। রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে এবার মোহাম্মদ রফিকরা ৫ উইকেটে হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ লিজেন্ডসের বিপক্ষে।

ভারতের রায়পুরে শুক্রবার (১২ মার্চ) রাতে টসে জিতে বাংলাদেশকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে পাঠান বাংলাদেশ লেজেন্টসকে। নাজিমউদ্দীন, মেহরাব হোসেন অপি, আফতাব আহমেদ ও মোহাম্মদ শরীফের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৬৯ রান করে বাংলাদেশ। জবাব দিতে নেমে ৭ বল বাকি থাকতে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৩ রান করে জয় তুলে নেয় উইন্ডিজ।

১৭০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে উইন্ডিজের দুই ওপেনার উইলিয়াম পারকিন্স (২২) ও রিডলি জ্যাকবস (৩৪)। পারকিন্সকে ফিরিয়ে ২৯ রানের এই জুটি ভাঙেন মুশফিকুর রহমান। জ্যাকব সাজঘরে ফেরেন রানআউট হয়ে। এরপর ডোয়াইন স্মিথকে (১০) বোল্ড করেন আব্দুর রাজ্জাক।

এরপর ২৮ বলে ৬ চার ও ২ ছয়ে ঝড়ো ইনিংস খেলে ক্যারিবিয়ানদের জয়ের কাজটা সহজ করে দেন কার্ক অ্যাডওয়ার্ডস। তাকে সঙ্গ দেন অধিনায়ক ব্রায়ান লারা। উইন্ডিজ ব্যাটিং কিংবদন্তি ২৩ বলে ৩ চারে ৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন। অ্যাডওয়ার্ডসকে নিজের দ্বিতীয় শিকার বানান রাজ্জাক। টিনো বেস্টকে (৫)। বোল্ড করেন রফিক। শেষদিকে দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান লারা ও মহেন্দ্র নাগামুতোর (১৬) ব্যাটে চড়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে উইন্ডিজ।  

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ক্যারিবীয় বোলারদের ওপর শুরু থেকে চওড়া হোন বাংলাদেশের দুই ওপেনার নাজিমউদ্দীন ও অপি। ওপেনিং জুটিতেই তারা স্কোরবোর্ডে ৬৪ রান জমা করেন। রান আউট হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে ২৪ বলে ৩ চার ২ ছয়ে ৩৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন নাজিমউদ্দীন।  

এরপর মেহরাব ও আফতাবের নজরকাড়া ব্যাটিংয়ে দলীয় তিন অঙ্কের ঘরে পা রাখে বাংলাদেশ। ২১ বলে ৪ চার ও ১ ছয়ে ৩১ রান করে টিনো বেস্টের বলে আউট হোন আফতাব। এর পরের ওভারেই রায়ান অস্টিনের বলে সাজঘরে ফেরেন মেহরাব। তার ৪৫ বলে ৪৪ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৫ চারে।  

এরপর হঠাৎ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। অস্টিন নিজের দ্বিতীয় শিকার বানান আব্দুর রাজ্জাককে (০)। উইকেটরক্ষক খালেদ মাসুদ পাইলটকে (৫) বোল্ড করেন সুলাইমেন বেন। তবে শেষদিকে হেসেছে মোহাম্মদ শরীফের ব্যাট। বেনের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে তিনি ১৩ বলে করেন ২৬ রান। যার মধ্যে ছক্কা হাঁকিয়েছেন ৩টি। বেনের তৃতীয় শিকার হন রফিক (০)।  মুশফিকুর রহমান ৩ এবং রাজিন সালেহ ৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।  

টুর্নামেন্টে এখনও পর্যন্ত ৪ ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ লিজেন্ডস। হেরেছে প্রত্যেক ম্যাচে। সোমবার (১৫ মার্চ) নিজেদের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা লিজেন্ডসের মুখোমুখি হবে রফিক-রাজ্জাকরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা