kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে- সুজনকে আইনি নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ মার্চ, ২০২১ ১৮:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে- সুজনকে আইনি নোটিশ

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসানকে মারতে যাওয়ার ঘটনায় বিসিবির পরিচালক ও জাতীয় ক্রিকেট দলের আরেক সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজনকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আজ রবিবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. আবু তালেব এই নোটিশ দিয়েছেন।

নোটিশে সংবাদ সম্মেলন করে ৭ দিনের মধ্যে প্রকাশ্য ক্ষমা চাওয়ার জন্য সুজনের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে। অন্যথায় সুজনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে নোটিশে বলা হয়েছে। আইনজীবী মো. আবু তালেব জানান, সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসান একজন মুক্তিযোদ্ধা ও তিনি খালেদ মাহমুদ সুজনের থেকেও সিনিয়র ক্রিকেট অধিনায়ক। তাকে অপমানের ঘটনা একজন ক্রিকেট ভক্ত হিসেবে সংক্ষুব্ধ হয়ে জনস্বার্থে এ নোটিশ পাঠিয়েছি।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে দেশের সাবেক কিংবদন্তি ক্রিকেটারদের নিয়ে আয়োজিত লিজেন্ডস চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সামান্য বিষয় নিয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার রকিবুল হাসানের দিকে মারার উদ্দেশ্যে তেড়ে যান খালেদ মাহমুদ সুজন। উপস্থিত ব্যক্তিরা তাকে আটকানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু সুজনকে আটকানো কঠিন ছিল। এক পর্যায়ে সুজন রাগ ঝাড়তে মাঠের পাশে থাকা স্পনসর প্রতিষ্ঠানের ছাতা উপড়ে ফেলেন! ঘটনাস্থলে উপস্থিত ব্যক্তিরা বিসিবি পরিচালক সুজনকে শান্ত করেন। 

এ নিয়ে ২৩ ফেব্রুয়ারি কালের কণ্ঠ পত্রিকায় ‘খেলার মাঝে রকিবুলকে কেন মারতে গেলেন সুজন’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সুজনের এমন ঘটনায় অনেকেই অবাক হয়েছেন। কেন এমন ঘটনা ঘটল- সে বিষয়ে ওই সময় দুজনের কেউই মুখ খুলতে রাজি হননি। তবে বিসিবির বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, ঘটনার দিন সকালে খাবার টেবিলে বসে ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে এক বিতর্কিত মন্তব্য করেন রকিবুল। তখন থেকেই ঝামেলার শুরু। যার পরিণতি ঘটে খেলার মাঠে সবার সামনে।

উল্লেখ্য, খালেদ মাহমুদ সুজন বর্তমানে বাংলাদেশ লিজেন্ডস দলের হয়ে 'রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ' খেলতে ভারতে অবস্থান করছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা