kalerkantho

সোমবার । ৬ বৈশাখ ১৪২৮। ১৯ এপ্রিল ২০২১। ৬ রমজান ১৪৪২

শাস্তি কমানোর আবেদন করলেন অনেক অপকর্মের নায়ক শাহাদাত

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৭:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শাস্তি কমানোর আবেদন করলেন অনেক অপকর্মের নায়ক শাহাদাত

গৃহকর্মীকে নির্মম নির্যাতনের দায়ে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন শাহাদাত। ফাইল ছবি

ছিলেন জাতীয় দলের সম্ভাবনাময় পেসার। কিন্তু একের পর এক অপকর্ম করে তিনি ক্যারিয়ারের বারোটা বাজিয়েছেন। ২০১৯ সালে জাতীয় লিগের ম্যাচে মাঠেই সতীর্থ ক্রিকেটারের গায়ে হাত তোলার অপরাধে শাহাদাত হোসেন রাজীবকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বা বিসিবি। সেইসঙ্গে  ৩ লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়। সেই নিষেধাজ্ঞার দেড় বছর না যেতেই এবার বিসিবির কাছে সাজা কমানোর আবেদন করেছেন শাহাদাত।

একসময়ের তারকা পেসার শাহাদাত বাংলাদেশের হয়ে ৩৮টি টেস্ট, ৫১টি ওয়ানডে ও ৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৫ সালের পর তাকে আর জাতীয় দলে দেখা যায়নি। এর আগে গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছিল ক্রিকেটার শাহাদত হোসেনের বিরুদ্ধে। যার জেরে ২০১৬ সালেও তার উপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছিল। তাকে গ্রেপ্তারও করেছিল পুলিশ। এরপর আবারও ২০১৯ সালে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে জাতীয় লিগের ম্যাচে স্পিনার আরাফাত সানির সঙ্গে বিবাদে জড়ান। শাহাদাত আচরণবিধির লেভেল-৪ ভেঙেছিলেন। এই ধারায় তিনি আজীবন নিষিদ্ধও হতে পারতেন।

৩৩ বছর বয়সী এই পেসার এবার বিসিবির কাছে শাস্তি কমানোর আবেদন করেছেন। যাতে তিনি আবার প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট খেলতে পারেন। এই পেসার জানিয়েছেন, তার মা ক্যান্সারে আক্রান্ত। তার চিকিৎসার জন্য খরচ করতে হয় মোটা অঙ্কের টাকা। ক্রিকেট থেকে দূরে থাকায় শাহাদাতের পক্ষে সেই খরচ চালানো কঠিন হয়ে যাচ্ছে। মূলতঃ মায়ের চিকিৎসা ব্যয় বহন করার জন্য তিনি ক্রিকেটে ফিরতে চান। ক্রিকবাজকে শাহাদাত বলেন, 'আমার শাস্তির মেয়াদ কমানোর জন্য বোর্ডের কাছে আবেদন করেছি। এখন বাকি সিদ্ধান্ত তাদের ওপরে নির্ভর করছে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা