kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ চৈত্র ১৪২৭। ১৩ এপ্রিল ২০২১। ২৯ শাবান ১৪৪২

গভীর রাতে নারী ক্রিকেটারের সঙ্গে টুইট চালাচালি; বিপদে ইংলিশ ওপেনার

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গভীর রাতে নারী ক্রিকেটারের সঙ্গে টুইট চালাচালি; বিপদে ইংলিশ ওপেনার

আহমেদাবাদ টেস্টে দেড় দিনে হেরে গেছে ইংল্যান্ড। হারের ব্যবধানও ১০ উইকেট। এরপর থেকে মোতেরা স্টেডিয়ামের উইকেট নিয়ে যে পরিমাণ সমালোচনা হচ্ছে, ইংলিশদের পারফর্মেন্স নিয়েও ততটাই হচ্ছে। ছেলেদের এমন দুরাবস্থা দেখে ইংল্যান্ডের নারী  ক্রিকেট দলের বাঁহাতি স্পিনার অ্যালেক্স হার্টলি মজা করে একটা টুইট করে বসেন। তার জবাব দিতে গিয়ে বিপদে পড়েছেন ভারত সফররত ইংলিশ ওপেনার ররি বার্নস।

অ্যালেক্স হার্টলি ২০১৯ সালের পর আর জাতীয় দলে ডাক পাননি। তিনি এখন ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার পাশাপাশি ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করেন। তো যেদিন ইংল্যান্ড ভারতের কাছে হেরে গেল, সেদিনই ডানেডিনে ইংল্যান্ড নারী দলের বিপক্ষে ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছিল নিউজিল্যান্ড নারী দল। সেই ম্যাচে ধারাভাষ্য দিচ্ছিলেন অ্যালেক্স হার্টলি। জো রুটরা ম্যাচ হারের পর তিনি টুইটারে ৪টি করতালির ইমোজি দিয়ে লিখেন, 'ভালো লাগছে যে ইংল্যান্ডের ছেলেরা রাতে নারী দলের ম্যাচটা শুরু হওয়ার আগেই টেস্ট শেষ করে দিয়েছে। বিটি স্পোর্টসেই দেখুন ওদের (মেয়েদের) খেলা।'

অ্যালেক্সের সেই টুইট চোখে পড়ে ররি বার্নসের। এমনিতেই বেচারা আহমেদাবাদ টেস্টের দল থেকে বাদ পড়েছেন। দলও হেরেছে। মন-মেজাজ খারাপ। তার ওপর এমন টুইট দেখে রেগেমেগে তিনি ভারতের সময় রাত ১টায় পাল্টা লিখেন, 'যেভাবে ইংল্যান্ডের ছেলেরা নারী ক্রিকেটকে সমর্থন করে এসেছে সব সময়, সেটার প্রতিদানে এমন মন্তব্য খুবই হতাশাজনক।' সাদা চোখে দেখলে, ররি বার্নসের টুইটে খারাপ কিছু নেই। কিন্তু গভীর রাতে একজন নারী ক্রিকেটারের সঙ্গে টুইট চালাচালি করায় তাকে তিরস্কার করেছে ইংলিশ টিম ম্যানেজম্যান্ট!

বার্নসের টুইটের পর অ্যালেক্স লিখেছিলেন, 'আমার মনে হয় আমার কথাটা ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। কাউকে আঘাত করার জন্য কিছু বলিনি। আমরা সবাই তো টেস্ট ম্যাচের ভক্ত।' অ্যালেক্সের টুইটের আর কোনো উত্তর দেননি বার্নস। উপরন্তু ৪৫ মিনিট পর তার আগের টুইটটি মুছে দেন। এর কারণ হিসেবে জানা যায়, ইংলিশ টিম ম্যানেজম্যান্টের চাপেই তিনি এমনটা করেছেন। বিষয়টি নিয়ে ইংলিশ কোচ ক্রিস সিলভারউড বলেছেন, 'কে কী বলেছে, কাজটা ভালো না খারাপ, সেটা বিচারের দায়িত্ব আমার না। আমার মনে হয় এসব ব্যাপার নিয়ে আমরা ইংল্যান্ডে ফেরার পর আলোচনা করতে পারি।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা