kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১২ রজব ১৪৪২

ক্লাব ছাড়লেন চেলসির 'ধারের খেলোয়াড়'

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৯:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্লাব ছাড়লেন চেলসির 'ধারের খেলোয়াড়'

১০ বছর, আটবার ধারে অন্য ক্লাবে যাওয়া, তিনটি সিনিয়র দলে খেলা- এসবই এখন লুকাস পিয়াজনের দলত্যাগের পর সামনে চলে এসেছে। প্রায় এক দশক কাটিয়ে অবশেষে চেলসি ছাড়লেন ২৬ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার। ২০১১ সালে ব্লুজদের দলে যোগ দিয়েছিলেন পিয়াজন। বর্তমানে তিনিই সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদে দলে থাকা একমাত্র খেলোয়াড়। ১০ বছরের দীর্ঘ চেলসি ক্যারয়ারে খেলেছেন আটটি ভিন্ন ভিন্ন কোচের অধীনে।

শেষ পর্যন্ত চেলসি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পেশাদার ক্যারিয়ারের অনেকটা সময় পার করে আসা এই মিডফিল্ডার। চেলসিতে তার মূল দলে কখনই সেভাবে জায়গা হয়নি। অ্যাটাকিং এই মিডফিল্ডার তাই স্থায়ীভাবেই চেলসি থেকে বিদায়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। চেলসিতে থাকাকালীন ধারে খেলেছেন স্পেন, নেদারল্যান্ড, জার্মানী, ইতালি ও পর্তুগালের সর্বোচ্চ লিগে। ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়নশিপের দল রিডিং ও ফুলহ্যামেও খেলার অভিজ্ঞতা হয়েছে।

২০১১ সালে সাও পাওলো থেকে তরুণ এই প্রতিভাকে চুক্তিবদ্ধ করেছিল চেলসি। ২০১২ সালের জানুয়ারিতে তাকে মূল দলে খেলার অনুমতি দেয়া হয়। কিন্তু ওই এক বছরে তিনি নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে শুরু করেছিলেন এবং চেলসির অনাগ্রহের কারণেই বিশ্বের অন্যান্য শীর্ষ দলগুলো পিয়াজনের দিকে নজর দেয়। ২০১২ সালের মে মাসে এফএ কাপ ইয়ুথ কাপে বর্ষসেরা তরুণ খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছিলেন পিয়াজন। মূল দলের হয়ে তিনি তিনটি ম্যাচই খেলেছিলেন ২০১২-১৩ মৌসুমে। প্রিমিয়ার লিগের একমাত্র ম্যাচে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ৮-০ গোলর উড়ন্ত জয়ের ম্যাচটিতে তিনি শেষ ১৫ মিনিট মাঠে ছিলেন। ওই বছরই লিগ কাপের দুটি ম্যাচে তার চেলসির সিনিয়র দলের হয়ে খেলার সৌভাগ্য হয়েছিল।

কিন্তু তারপর থেকেই পিয়াজনের ধারে খেলার ক্যারিয়ার শুরু হয়। নেদারল্যান্ডের ভিটেসে ও জার্মানির এইন্ট্রাখট ফ্রাংকফুর্টের হয়ে ধারে খেলার আগে খেলেছেন স্পেনের মালাগাতে। ২০১৫ সালে রিডিং ও ফুলহ্যামের খেলার মাধ্যমে পিয়াজন ইংল্যান্ডে ফিরেন। ফুলহ্যামের হয়ে দুটি সফল মৌসুম কাটানোর পর তিনি ২০১৭-১৮ মৌসুমে ক্লাবটিকে প্রিমিয়ার লিগে উন্নীত করেন। এরপর ইতালিয়ান ক্লাব চিয়েভো ও পর্তুগিজ ক্লাব রিও আভেতে ধারে খেলতে গিয়েছিলেন। চেলসি থেকে বিদায় নিয়ে এবার তিনি পর্তুগিজ শীর্ষ লিগের ক্লাব ব্রাগার সাথে ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা