kalerkantho

শনিবার । ২১ ফাল্গুন ১৪২৭। ৬ মার্চ ২০২১। ২১ রজব ১৪৪২

'ওপর মহলের নির্দেশে দুই বোনকে খুন করতে যাই'

অনলাইন ডেস্ক   

৯ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'ওপর মহলের নির্দেশে দুই বোনকে খুন করতে যাই'

আলটিমেট ফাইটিং চ্যাম্পিয়নশিপে (ইউএফসি) 'দ্য বিস্ট' হিসেবে পরিচিত আরউইন রিভেরাকে অনেকেই চিনে থাকবেন। মেক্সিকান এই ইউএফসি খেলোয়াড় এক ভয়ংকর কাণ্ড ঘটিয়েছেন। তিনি তার নিজের দুই বোনকে হত্যার চেষ্টা করেছিলেন। তবে তিনি সফল হননি। দুই বোন গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসাধীন। ৩১ বছর বয়সী রিভেরাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর তিনি বলেছেন অদ্ভুত এক কথা- ওপর মহলের নির্দেশে নাকি নিজের বোনদের তিনি মারতে গিয়েছিলেন!

ফ্লোরিডা পুলিশের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এপি জানিয়েছে, রিভেরার দুই বোন তাদের ভাইয়ের বাসায় বেড়াতে এসেছিলেন। রাতে ঘুমন্ত দুই বোনের ওপর ছুরি হাতে ঝাঁপিয়ে পড়েন রিভেরা। সেই হামলা থেকে কোনোমতে বেঁচে রাস্তায় গিয়ে চিৎকার করে প্রতিবেশীদের ডাকেন রিভেরার ২২ বছর বয়সী এক বোন। তখন সেই বোন আর কয়েকজন প্রতিবেশি পুলিশকে ফোন করে। পুলিশ এসে দেখে রিভেরার ২২ বছর বয়সী এক বোন রাস্তায় রক্তাক্ত মুখে পড়ে কাতরাচ্ছেন। এ সময় ঘরে থাকা রিভেররার ৩৩ বছর বয়সী অপর বোনকেও মুমুর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

দুই বোনের শরীরেই একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। বড় বোনের দুটি ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২২ বছরের এক তরুণী জানান, তাদের ভাই তাকে এবং আরও এক বোনকে ছুরি ও পিতলের গিঁট দিয়ে আঘাত করেছেন। তাদের হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসক জানান, একজন বিপদমুক্ত হলেও আরেকজনের অবস্থা গুরুতর। পুলিশ আসতেই ঘর থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় রিভেরা বেরিয়ে আসেন। তবে পুলিশ দেখেই পালিয়ে যান। কিন্তু ৪ ঘণ্টার মাঝেই রিভেরাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর শুরু হয় আরেক নাটক। 

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে রিভেরা দাবি করেন, ওপর মহলের ইচ্ছায় বোনদের মেরে ফেলতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এই ওপর মহল কে এবং কেন মেরে ফেলার ইচ্ছা, তা নিয়ে রিভেরা মুখ খোলেননি। ইউএফসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, রিভেরার মানসিক সমস্যা নাকি প্রকট হয়ে উঠেছে। যে কারণে জামিন না পেলেও বেকার আইনের অধীনে মানসিক চিকিৎসার হাসপাতালে নেওয়া হয় রিভেরাকে। অবশ্য রিভেরার মানসিক অসুস্থতাকে সমর্থন করেছেন তার আরেক বোন লেজলি রিভেরা!

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা