kalerkantho

মঙ্গলবার। ৫ মাঘ ১৪২৭। ১৯ জানুয়ারি ২০২১। ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নিউজিল্যান্ডের হয়ে খেলবেন না অ্যান্ডারসন, খেলবেন যুক্তরাষ্ট্রে

অনলাইন ডেস্ক   

৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৫:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিউজিল্যান্ডের হয়ে খেলবেন না অ্যান্ডারসন, খেলবেন যুক্তরাষ্ট্রে

কোরি অ্যান্ডারসন। ছবি: এএফপি

নিউজিল্যান্ডের জার্সি গায়ে আর দেখা যাবেনা মারকুটে ব্যাটসম্যান কোরি অ্যান্ডারসনকে। জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়েছেন এই অলরাউন্ডার। তবে কিউইদের হয়ে না খেললেও যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ ক্রিকেট টি-টোয়েন্টিতে দেখা যাবে তাকে। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে নিউজিল্যান্ডের জার্সিতে ৯৩টি ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেছেন তিনি।

জাতীয় দল থেকে অবসর বিষয়ে কোরি অ্যান্ডারসন বলেন, “নিউজিল্যান্ডের প্রতিনিধিত্ব করা দারুণ সম্মান ও গর্বের ব্যাপার। জাতীয় দলের হয়ে আরো খেলতে পছন্দ করতাম। তবে এমনটা সবসময় হয়ে ওঠে না। কখনো কখনো নতুন সুযোগ এসে আমাদের সম্পূর্ণ অন্যদিকে নিয়ে যায়। যে বিষয়ে হয়তো আমরা কেউই ভাবিনি। নিউজিল্যান্ড আমার জন্য যা করেছে, তাতে আমি কৃতজ্ঞ।”

২০১৪ সালের শুরুতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩৬ বলে সে সময়ের দ্রুততম ওয়ানডে সেঞ্চুরির বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন অ্যান্ডারসন। পরে ২০১৫ বিশ্বকাপে তার সেই রেকর্ড ভেঙে দেন সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। ২০১৫ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডকে ফাইনালে তোলার পেছনেও অবদান ছিল অ্যান্ডারসনের। ৩৩ গড়ে ২৩১ রান ও ১৪ উইকেট নিয়ে কিউইদের অন্যতম সেরা পারফর্মার ছিলেন এই অলরাউন্ডার।

আফ্রিদির রেকর্ড ভেঙ্গে সবার নজরে আসা এই ক্রিকেটারকে ২০১৪ সালে প্রায় সাড়ে ছয় কোটি টাকার বিনিময়ে দলে ভেড়ায় আইপিএলের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। সেবার মুম্বাইকে কোয়ালিফায়ারে তোলার পেছনে অনেক বড় হাত ছিল অ্যান্ডারসনের। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ৪৪ বলে ৯৫ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে মুম্বাই-সমর্থকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন তিনি।

কোরি অ্যান্ডারসন ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ ক্রিকেট টি-টোয়েন্টিতে নাম লিখিয়েছেন পাকিস্তানের সামি আসলাম ও দক্ষিণ আফ্রিকার ড্যান পিয়েট। তিন বছর সেখানে খেলার পর চাইলে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও নাম লেখাতে পারবেন অ্যান্ডারসন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা