kalerkantho

বুধবার । ১৩ মাঘ ১৪২৭। ২৭ জানুয়ারি ২০২১। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

অলিম্পিকের বিক্রিত টিকেটের ১৮ শতাংশ ফেরত দেয়া হবে

অনলাইন ডেস্ক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৭:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অলিম্পিকের বিক্রিত টিকেটের ১৮ শতাংশ ফেরত দেয়া হবে

করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছর স্থগিত হয়ে যাওয়া টোকিও অলিম্পিক আগামী বছর জুলাই-আগস্টে অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু ইতোমধ্যেই অলিম্পিককে সামনে রেখে বিক্রি হয়ে যাওয়া টিকেটের ১৮ শতাংশ ফেরত দেয়া হবে বলে আয়োজক কমিটি নিশ্চিত করেছে। গেমসের জন্য প্রায় ৩.৬ মিলিয়ন আসন জাপানের নাগরিকদের জন্য সংরক্ষিত রাখা হবে।

আয়োজকরা জানিয়েছেন ৪.৪৫ মিলিয়ন বিক্রিত টিকিটের মধ্যের মধ্যে প্রায় ৮ লাখ ১০ হাজার টিকিট ফেরত দেয়া হবে। এই টিকিটগুলো পরবর্তীতে আবারো বিক্রির জন্য ছেড়ে দেয়া হবে। জাপানের নাগরিকদের জন্য বিক্রিত টিকেট ফেরতের তিন সপ্তাহের উইন্ডো গত ৩০ নভেম্বর বন্ধ হয়ে গেছে।

এদিকে প্যারালিম্পিকের জন্য টিকেট ফেরতের আবেদনের উইন্ডো ১-২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত উন্মুক্ত থাকবে। জাপানের বাইরে অন্যান্য দেশে যারা টিকেট ক্রয় করেছেন তাদের টিকেট ফেরতের জন্য স্থানীয় খুচরা বিক্রেতাদের সাথে যোগাযোগের অনুরোধ জানানো হয়েছে। গত মার্চে করোনাভাইরাসের কারণে অলিম্পিক পিছিয়ে দেবার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

নতুন তারিখ অনুযায়ী আগামী বছর ২৩ জুলাই থেকে অলিম্পিকের আসর শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। ইতোমধ্যেই আয়োজকরা আগামী বছর এই গেমস আয়োজনের ব্যপারে নিজেদের প্রতিশ্রুতির নিশ্চয়তা দিয়েছে। এমনকি করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলেও তারা যেকোন মূল্যেই এই গেমস আয়োজন করবে।

দ্বিতীয়বারের মতো পেছানোর কোন ইচ্ছা বা পরিকল্পনা কোনোটাই অলিম্পিক আয়োজকদের নেই। এদিকে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান থমাস বাখ বলেছেন আগামী বছরের এই মেগা ইভেন্টে দর্শকদের মাঠে ফেরানোর ব্যপারে বেশ আশাবাদী। তবে পুরো স্টেডিয়াম হয়ত দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়াটা সম্ভব হবে না বলেও তিনি সতর্ক করেছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা