kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনে করেন...

মেসিকে বিক্রি করে দেওয়া উচিত ছিল বার্সেলোনার

অনলাইন ডেস্ক   

৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ০৯:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মেসিকে বিক্রি করে দেওয়া উচিত ছিল বার্সেলোনার

রেকর্ড ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত

গ্রীষ্মের দলবদলে সেরা তারকা লিওনেল মেসিকে বিক্রি করে দেওয়া উচিত ছিল বলে মনে করেন বার্সেলোনার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কার্লেস তুসকেতস। তিনি বলেন, 'ক্লাবের আর্থিক অবস্থা বিবেচনায় তখন আর্জেন্টাইন তারকাকে বিক্রি করে দেওয়া উচিত ছিল।'

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে রেকর্ড ব্যবধানে হারের পর গত আগস্টে হঠাৎ করে বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দেন মেসি। চুক্তির একটি ধারা কার্যকর করে ফ্রি ট্রান্সফারে ন্যুক্যাম্প ছাড়তে চেয়েছিলেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। তবে বার্সেলোনা অনড় ছিল মেসির রিলিজ ক্লজের ৭০ কোটি ইউরোর দাবি নিয়ে। শেষ পর্যন্ত অচলাবস্থার অবসান হয় নীরবতা ভেঙে মেসি বার্সেলোনাতে থেকে যাওয়ার ঘোষণা দেওয়ায়।

সম্প্রতি স্প্যানিশ রেডিও 'আরএসি-১'কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসির বিষয়ে নিজের ভাবনার কথা জানান তুসকেতস। বলেন, 'ক্লাবের আর্থিক অবস্থার কথা বলতে গেলে, গত গ্রীষ্মে আমি মেসিকে বিক্রি করে দিতাম। ক্লাবের জন্য সেটা লাভজনক হতো, বড় অঙ্কের অর্থ আসতো এবং তারা কিছুটা জমাতেও পারতো।'

বার্সেলোনার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কার্লেস তুসকেতস। ছবি: সংগৃহীত 

বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে আগামী জুনে। তখন ফ্রি ট্রান্সফারে ক্লাব ছাড়তে পারবেন রেকর্ড ছয়বারের বর্ষসেরা এই ফুটবলার।

মেসির সঙ্গে আবার জুটি বাঁধার ইচ্ছার কথা বুধবার জানিয়েছেন ২০১৭ সালে বার্সেলোনা থেকে পিএসজিতে যোগ দেওয়া নেইমার। অনেক দিন ধরে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে ন্যুক্যাম্পে ফেরানোর চেষ্টা করছে বার্সেলোনা। ক্লাবের বর্তমান আর্থিক অবস্থায় কাজটা কঠিন বলে মনে করেন তুসকেতস। বলেন, 'যদি সে (নেইমার) ফ্রি ট্রান্সফারে আসে, তাহলেই কেবল এটি সম্ভব...নয়তো কিছু খেলোয়াড় বিক্রি করে পাওয়া সব অর্থ তাকে দলে টানতেই চলে যাবে। এটা অসম্ভব।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা