kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ মাঘ ১৪২৭। ২৬ জানুয়ারি ২০২১। ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

ঢাকাকে হারিয়ে জয়ে ফিরল খুলনা

অনলাইন ডেস্ক   

১ ডিসেম্বর, ২০২০ ০১:৫৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকাকে হারিয়ে জয়ে ফিরল খুলনা

বঙ্গবন্ধু টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে এখনো জয়ের স্বাদ পায়নি মুশফিকুর রহীমের বেক্সিমকো ঢাকা। টানা তৃতীয়বারের মতো হারের স্বাদ পেল তারা। সোমবার হারল জেমকন খুলনার সঙ্গে। 

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ১৪৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে পারেনি ঢাকা, যদিও ভালো বোলিং করেছিল। পলে ৩৭ রানের ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নিয়েছে খুলনা, যা এ টুর্নামেন্টে দলটির দ্বিতীয় জয়। আর অপরদিকে মুশফিকুর রহীমের ঢাকা টানা তিন ম্যাচ হারল।

খুলনার দেওয়া ১৪৭ রান তাড়া করতে নামে ঢাকা। এরপর প্রথম তিন ওভারেই ৩ উইকেট হারায়। দলীয় সংগ্রহ ১৫ হওয়ার আগেই সাজঘরে ফিরে যান তানজিদ হাসান তামিম (৩ বলে ৪), মোহাম্মদ নাইম শেখ (৩ বলে ১) ও রবিউল ইসলাম রবি (৯ বলে ৪)।

সাকিব আল হাসান দুর্দান্ত বোলিং করেন। নিজের প্রথম দুই ওভারে কোনো রানই খরচ করেননি, নাইম শেখকে আউট করেন।

ইয়াসির আলি রাব্বি ও মুশফিকুর রহীম চতুর্থ উইকেটে বিপর্যয় থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর আভাস দেন। ৫৩ বলে ৫৭ রানের জুটি গড়েন তারা। দলীয় ৭১ রানের মাথায় হাসান মাহমুদের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরে যান ইয়াসির। ২৯ বলে ২ চারের মারে ২১ রান করে এ ডানহাতি মিডল অর্ডার।

ইয়াসির ফিরে যাওয়ার পর বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি মুশফিকও। ইনিংসের ১৪তম ওভারে দলীয় ৭৮ রানের মাথায় স্লগ সুইপ করে ডিপ মিড উইকেটে শামীম হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন মুশফিক। তার ব্যাট থেকে আসে ৫ চারের মারে ৩৫ বলে ৩৭ রান। মুশফিকের মূল্যবান উইকেটটি নেন ব্যাট হাতে ৫ বলে ১৫ রান করা শুভাগত হোম।

এরপর শুধু বাকি ছিল খুলনার জয়ের আনুষ্ঠানিকতা, যা সহজেই সারেন শহীদুল ইসলাম, হাসান মাহমুদরা। মুশফিক ও ইয়াসির ব্যতীত ঢাকার পক্ষে আর কেউই দুই অঙ্কে যেতে পারেননি। তৃতীয় সর্বোচ্চ ১৫ রান আসে অতিরিক্ত খাত থেকে। শেষপর্যন্ত ১০৯ রানে অলআউট হয় ঢাকা, খুলনা পায় ৩৭ রানের সহজ জয়।

খুলনার পক্ষে বল হাতে ৩টি করে উইকেট নেন শহীদুল ইসলাম ও শুভাগত হোম। এছাড়া হাসান মাহমুদ নিজের ঝুলিতে পুরেন ২টি উইকেট। বাঁহাতি স্পিনে ৪ ওভারে দুই মেইডেনসহ মাত্র ৮ রান খরচায় ১ উইকেট নেন সাকিব।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা