kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কোহলির তীব্র সমালোচনায় গাভাস্কার

অনলাইন ডেস্ক   

২৯ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোহলির তীব্র সমালোচনায় গাভাস্কার

মাঠ ও মাঠের বাইরে খুব খারাপ সময় যাচ্ছে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির। আজই অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ হেরে বসেছে তার দল। আর মাঠের বাইরেও তাকে নিয়ে চলছে সমালোচনা। পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলে দেশে ফিরে আসছেন ভারত অধিনায়ক। এটা নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে অনেক মতামত এসেছে। এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন ভারতের কিংবদন্তি ওপেনার সুনীল গাভাস্কার। 

১৯৭৫-৭৬ মৌসুমের উদাহরণ টেনে ভারতকে ৪৭ টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়া গাভাস্কার 'মিড ডে' পত্রিকায় লিখেছেন, 'সরাসরি বলছি, সন্তান জন্মের সময় স্ত্রীর পাশে থাকার জন্য ফিরে আসার অনুমতি চাইনি। যখন নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর পর সফরের জন্য ভারতীয় দলের সঙ্গে উড়াল দিয়েছিলাম, তখনই জানতাম যে আমি বাইরে থাকার সময়েই সন্তানের জন্ম হবে। কিন্তু দেশের হয়ে খেলার জন্য দায়বদ্ধ ছিলাম। আর এতে স্ত্রীর পুরো সমর্থনও পেয়েছিলাম।'

অর্থাৎ, ব্যক্তিগত জীবনের চেয়ে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করাকেই বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলেন গাভাস্কার। কিছুদিন আগে কপিল দেবও একই কথা বলেছিলেন। ভারতের প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক বলেছিলেন, 'মনে হয় না কোনো সফরে গিয়ে আমরা মাঝপথে ফিরে আসার বিলাসিতা দেখাতে পারতাম। আর এই বিষয়ে আমি নিশ্চিত। সুনীল গাভাস্কার তো মাসের পর মাস ছেলের মুখই দেখতে পায়নি। তখন ব্যাপার অন্য রকম ছিল।'

১৭ ডিসেম্বর থেকে অ্যাডিলেডে শুরু হবে অস্ট্রেলিয়া-ভারতের মধ্যেকার প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট। এই টেস্ট খেলেই দেশে ফিরবেন কোহলি। ভারতীয় দলের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী কোহলির পাশে দাঁড়িয়ে সম্প্রতি বলেছেন, 'যদি ১৪ দিনের কোয়রান্টিন না থাকত, তাহলে কোহালি হয়তো চতুর্থ টেস্ট খেলতে পারত। পাশাপাশি কোহলির সকল সমর্থক এবং সমালোচকদের বলতে চাই যে, প্রথম এশিয়ান অধিনায়ক হিসেবে কোহলি কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে টেস্ট সিরিজ জিতেছে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা