kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু জাতীয় দূরপাল্লা সাঁতার অনুষ্ঠিত

প্রসূন মন্ডল, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ১৯:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু জাতীয় দূরপাল্লা সাঁতার অনুষ্ঠিত

গোপালগঞ্জের মধুমতি নদীতে অনুষ্ঠিত হলে গেল “বঙ্গবন্ধু ১৭তম জাতীয় দূরপাল্লা সাঁতার প্রতিযোগিতা” । জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশন এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। পৃষ্ঠপোষকতা করে ম্যাক্স গ্রুপ। প্রতিযোগিতায় পুরুষ বিভাগে প্রথম স্থান অর্জন করে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ফয়সাল আহমেদ, দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জয়েল আহম্মেদ এবং তৃতীয় অবস্থানে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কাজল মিয়া।

নারী বিভাগে প্রথম স্থান অধিকার করেন  বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার, দ্বিতীয় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জুলি আক্তার এবং তৃতীয় অবস্থানে   বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সবুরা খাতুন। গতকাল শনিবার সকাল ৯টায় পুরষ সাঁতারুদের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কংশুর থেকে সাঁতার শুরু হয়ে হরিদাসপুর ব্রিজ পর্যন্ত প্রায় ১০ কিলোমিটার এবং নারী সাঁতারুদের উলপুর ব্রীজ থেকে শুরু হয়ে হরিদাসপুর ব্রীজ পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটার প্রতিযোগিতা হয়।

পরে বিকাল আড়াইটায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ ও সমাপনী অনুষ্ঠান করা হয়। এ উপলড়্গে গোপালগঞ্জ শেখ ফজলুল হক মনি স্মৃতি মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সভাপতি ও নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল এম শাহীন ইকবাল প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক এম বি সাইফ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ম্যাক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ আলমগীর, রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা,গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান। এছাড়াও বাংলাদেশ সুইমিং ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যগণ, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারীদের হাতে পুরস্কার  ও সনদ তুলে দেন অতিথিবৃন্দ ।

প্রথম স্থান অর্জনকারীকে ১৫,০০০/- (পনের  হাজার) টাকা, দ্বিতীয় স্থান অর্জনকারীকে ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা এবং তৃতীয় স্থান অর্জনকারীকে ৭,০০০/- (সাত হাজার) টাকা, সার্টিফিটেক ও ট্রফি প্রদান করা হয়। এছাড়াও অংশগ্রহণকারী অন্যান্য সাঁতারুদের স্বান্ত্বনা পুরস্কার হিসেবে ৩,০০০/- (তিন হাজার) টাকা হারে অংশগ্রহণ সনদপত্র প্রদান করা হয়।

সাঁতার  প্রতিযোগিতায় ৭ জন পুরুষ এবং ৭ জন নারী সাঁতারু অংশগ্রহণ করেন। পুরুষ বিভাগের বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ফয়সাল আহমেদ, জুয়েল আহম্মেদ; বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মোঃ কাজল মিয়া, পলাশ চৌধুরী, ইছামতি সুইমিং ক্লাব পাবনার মোঃ শিপন, বাংলাদেশ আনসার এর মোঃ আশিক শেখ ও গোপালগঞ্জ সুইমিং ক্লাব এর দীন ইসলাম এবং নারী বিভাগে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার, সবুরা খাতুন, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জুলি আক্তার, বাংলাদেশ আনসার এর মুক্তি খাতুন, আমলা সুইমিং ক্লাব কুষ্টিয়া এর মুক্তা খাতুন, ঝিনাইদহ জেলা ক্রীড়া সংস্থার বৈশাখী খাতুন ও গোপালগঞ্জ সুইমিং ক্লাব এর সুমাইয়া আক্তার অংশগ্রহণ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা