kalerkantho

বুধবার। ৬ মাঘ ১৪২৭। ২০ জানুয়ারি ২০২১। ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নান্দনিক লিটন : চট্টগ্রামের বিশাল জয়

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:১১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নান্দনিক লিটন : চট্টগ্রামের বিশাল জয়

হাফ সেঞ্চুরির পর ব্যাট উঁচিয়ে ধরলেন লিটন দাস। ছবি : বিসিবি

মুস্তাফিজুর রহমানের বিধ্বংসী বোলিংয়ের পর লিটন দাসের নান্দনিক ব্যাটিংয়ে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে জেমকন খুলনাকে আজ তারা ৯ উইকেটে হারিয়েছে। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে মুস্তাফিজের বোলিং তোপে তারকাবহুল দল জেমকন খুলনা মাত্র ৮৬ রানে গুটিয়ে যায়। এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে লিটন দাস খেলেন ৪৬ বলে অপরাজিত ৫৩ রানের ইনিংস। ফেভারিট হিসেবে আসর শুরু করা খুলনার এটা ৩ ম্যাচে দ্বিতীয় হার।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বল হাতে ঝলসে উঠলেন 'কাটার মাস্টার'। এই নিয়ে নিজেদের দুই ম্যাচেই প্রতিপক্ষকে একশর নিচে আটকে ফেলল চট্টগ্রাম। আগের ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকাকে তারা ৮৮ রানে শেষ করে দিয়েছিল। খুলনার দুর্দশার শুরু প্রথম ওভার থেকে। রান নেওয়ার চেষ্টায় বিজয় আর সাকিব চলে যান এক প্রান্তে। মোহাম্মদ মিঠুনের সরাসরি থ্রোয়ে রান আউট হয়ে ফেরেন বিজয়।৫ হাজারের মাইলফলক ছুঁতে সাকিবের প্রয়োজন ছিল ৩ রান। ওই ৩ রান করেই তিনি মিড অনে ক্যাচ তুলে দেন।

তিনে নেমে ইমরুল কায়েস বরাবরের মতো উইকেট উপহার দিয়ে আসেন। প্রথম দুই ম্যাচে 'ডাক' মারা ইমরুল আজ অবশ্য ২৬ বলে ২১ রান করেন। আগের দুই ম্যাচে দারুণ ব্যাটিংয়ে দলকে উদ্ধার করা আরিফুল হকও আজ ৩০ বলে মাত্র ১৫ রানে আউট হন। ৩.৫ ওভারে মাত্র ৫ রান দিয়ে ৪ উইকেট শিকার করেন মুস্তাফিজ। আর টানা ৪ ওভারের স্পেলে বল করে নাহিদুলের শিকার ১৫ রানে ২ উইকেট। ১৭.৫ ওভারে মাত্র ৮৬ রানে অল-আউট হয় খুলনা।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭৩ রানের উদ্বোধনী জুটি উপহার দেন লিটন দাস আর সৌম্য সরকার। সৌম্য ২৬ রানে আউট না হলে ১০ উইকেটেই জয় পেত চট্টগ্রাম। নান্দনিক সব শটের প্রদর্শনী করে লিটন ৪৬ বলে ৫৩ রানে অপরাজিত থেকে যান। তার ইনিংসে ছিল ৯ টি দৃষ্টিনন্দন চারের মার। এর মধ্যে ইনিংসের তৃতীয় ওভারে পেসার হাসান মাহমুদকে টানা চারটি বাউন্ডারি হাঁকান লিটন। এই জয়ে চট্টগ্রাম উঠে এসেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। আর খুলনার অবস্থান তিন নম্বরে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা