kalerkantho

মঙ্গলবার । ১২ মাঘ ১৪২৭। ২৬ জানুয়ারি ২০২১। ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

পাকিস্তান দলকে দেশে ফেরত পাঠানোর হুমকি নিউজিল্যান্ডের

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ নভেম্বর, ২০২০ ১৮:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তান দলকে দেশে ফেরত পাঠানোর হুমকি নিউজিল্যান্ডের

আবারো যদি করোনার কড়া বিধি ভঙ্গ করে, তবে পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে দেশে ফেরত পাঠানো হবে। সফররত পাকিস্তান দলকে এমনই সর্তক বার্তা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড সরকার। সফররত পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ছয় সদস্য বৃহস্পতিবার করোনা পজিটিভ হয়েছেন। তাদের মধ্যে চারজন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন, বাকি দুইজন আগের থেকেই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। দলে করোনা আক্রান্ত থাকার পরও কোয়ারেন্টিনের শর্ত ভঙ্গ করেছে পাকিস্তান দল। তাই পাকিস্তানকে সর্তক করেছে নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ড.অ্যাশলি ব্লমফিল্ড।

সিসিটিভিতে পাকিস্তানের নিয়ম ভঙ্গের সবকিছু দেখেছেন নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক। নিউজিল্যান্ডের আরএনজেড নামে একটি রেডিওতে খোলাসা করে ব্লমফিল্ড বলেন, 'কোয়ারেন্টিনের প্রথম তিন দিন নিজেদের রুমে থাকা বাধ্যতামূলক ছিল। কিন্তু তাদের কয়েকজন কক্ষের বাইরে বারান্দায় মেলামেশা করেছে। খাবার ভাগাভাগিও করেছেন, এমনকি মাস্ক পরাও ছিল না। আমরা ঠিক জানি না, কতবার এসব তারা করেছেন। করোনা কড়া নিয়ম মানার শর্তে স্বাক্ষর করেই তো নিউজিল্যান্ড সফরে এসেছে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। তাই সবকিছু তাই তাদের পরিস্কারভাবেই জানার কথা।'

এমন ঘটনায় খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে হোয়াটসঅ্যাপে কড়া অডিও বার্তা পাঠান পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান। সেখানে তিনি বলেন, 'নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, তারা জানিয়েছেন, তিন-চারটি বিধি ভঙ্গ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কোনো ছাড় দিবে না নিউজিল্যান্ড সরকার। তাই আমাদেরকে চূড়ান্তভাবে সর্তক করে দেওয়া হয়েছে। ওই দেশের সরকার আমাকে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, আরেকবার নিয়ম ভাঙ্গলে, দল দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।'

তিনদিনের কোয়ারেন্টিন শেষে শুক্রবার থেকে অনুশীলন শুরু করার কথা ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু বিধি ভঙ্গ করায়, বৃহস্পতিবার থেকে আবারো নতুন করে তিন দিনের কোয়ারেন্টিন শুরু হয়েছে। ওয়াসিম আরও বলেন, 'আমরা জানি, কোয়ারেন্টিনে থাকা সহজ নয়। ইংল্যান্ডেও একই অবস্থার মধ্যে খেলতে হয়েছে। কিন্তু এটা দেশের সম্মান ও বিশ্বাসযোগ্যতার ব্যপার। ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষ করে, যেভাবে খুশি বাইরে ঘোরা, মেলামেশা, আড্ডা, খাওয়া-দাওয়া সবই করা যাবে। তাই সবাইকে নিয়ম মানতে হবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা