kalerkantho

শনিবার । ৯ মাঘ ১৪২৭। ২৩ জানুয়ারি ২০২১। ৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সেই বিখ্যাত ১০ নম্বর জার্সি অবসরে পাঠানোর দাবি

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ নভেম্বর, ২০২০ ১৫:৩০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সেই বিখ্যাত ১০ নম্বর জার্সি অবসরে পাঠানোর দাবি

ছবি : এএফপি

মানুষটা চলে গেছেন না ফেরার দেশে, কিন্তু থেকে গেছে তার অমর কীর্তি। থেকে গেছে তার বিখ্যাত '১০ নম্বর' জার্সি। এই ১০ নম্বর জার্সি পরেই আর্জেন্টিনা থেকে নাপোলি, বার্সেলোনা থেকে শৈশবের বোকা জুনিয়র্স ক্লাবের মাঠে তিনি শাসন করেছেন। আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনার ১০ নম্বর জার্সিটি চিরকালের মতো বিশ্রামে পাঠানোর জন্য ফিফার কাছে আবেদন করেছেন মার্সেই দলের ম্যানেজার আন্দ্রে ভিয়া বোয়াস। 

বোয়াস তিনি বলেছেন, 'ম্যারাডোনার মৃত্যুর চেয়ে খারাপ খবর তো আর কিছু হতে পারে না। পাশাপাশি হারালাম এফসি পোর্তো ক্লাবের এক বোর্ড সদস্যকেও, যিনি আমার জীবনে ছিলেন গুরুত্বপূর্ণ। ম্যারাডোনাই ছিলেন সেই ব্যক্তিত্ব, যিনি কোচিং জগতে আমার জন্য দরজা উন্মুক্ত করে দিয়েছিলেন। আমি চাই ফিফা সমস্ত ধরনের প্রতিযোগিতা থেকে এই দশ নম্বর জার্সিকে অবসরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুক। এটাই হবে তাঁর প্রতি যোগ্য শ্রদ্ধা। ম্যারাডোনার মৃত্যু বিশ্ব ফুটবলের কাছে এক  অপূরণীয় ক্ষতি।'ম্যারাডোনার

ম্যারাডোনার আকস্মিক প্রয়াণের খবরে স্তম্ভিত জিনেদিন জিদান। সাবেক ফরাসি তারকা এবং রিয়াল মাদ্রিদ ম্যানেজার বলেছেন, 'বিশ্ব ফুটবলের কাছে এ এক ভয়ঙ্কর ক্ষতি। ১৯৮৬ সালে ম্যারাডোনা যখন বিশ্বকাপ জিতছেন, আমার বয়স ছিল মাত্র ১৪ বছর। তখন থেকেই আমি মাথার মধ্যে ম্যারাডোনার ছবি এঁকে নিয়েছিলাম। নিজেকে খুব ভাগ্যবান বলেই মনে করি কারণ ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয় নিয়ে তাঁকে ব্যক্তিগতভাবে কিছু কথা বলার সুযোগ পেয়েছিলাম। যে কোনো শিশুই নিজেদের ইচ্ছার কথা অন্যদের জানাতে চায়। আমিও সেই সুযোগ পেয়েছিলাম এবং বলেছিলাম, মাঠে তিনি কতটা বিধ্বংসী ছিলেন। সেটা আমার জীবনের সেরা স্মৃতি। নিঃসন্দেহে এই খবরটা শোনার জন্য তৈরি ছিলাম না।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা