kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

ফাইভ স্টার 'জেলখানায়' বন্দি কোহলি অ্যান্ড কোং

অনলাইন ডেস্ক   

২১ নভেম্বর, ২০২০ ২০:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফাইভ স্টার 'জেলখানায়' বন্দি কোহলি অ্যান্ড কোং

ছবি : টুইটার

তিন সংস্করণের সিরিজ সামনে রেখে এখন অস্ট্রেলিয়া সফরে আছে ভারতীয় দল। সেখানে তাদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে। যা এককথায় বন্দিজীবন। বিলাসিতার কমতি নেই। নেই খাওয়া এবং বিনোদনের অভাব। একেবারেই যে দরজা বন্ধ করে রুমে বসে থাকতে হচ্ছে সেটাও কিন্তু নয়। মাঠে যেতে পারছেন। পেয়েছেন অনুশীলনের সুযোগ। তারপরেও ভারতীয় দলের এক সদস্যের মতে, তারা বন্দি আছেন ফাইভ স্টার জেলখানায়! 

আরব আমিরাতে আইপিএল খেলতে প্রায় তিন মাস জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে ছিলেন ভারতের ক্রিকেটাররা। তবে অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য ভারতীয় বোর্ড কোয়ারেন্টিন শিথিল করার শর্ত দিয়েছিল। বিপাকে পড়ে অজি বোর্ড তা মানতে বাধ্য হয়েছে। কারণ ভারতীয় দল সফরে যাওয়া মানে প্রচুর আয়-রোজগার হওয়া। হোটেল রুম থেকে কোহলিরা বের হচ্ছেন ঠিকই, তবে সেটা শুধু মাঠে যাওয়ার জন্য। মাঠ থেকে হোটেল এবং হোটেল থেকে সরাসরি মাঠ।

ভারতের সংবাদমাধ্যম 'মুম্বাই মিরর' জানিয়েছে, সফররত দলের এক ক্রিকেটার নাকি তার পরিবারকে বলেছেন যে তারা ফাইভ স্টার জেলখানায় আছেন। একসঙ্গে বসে আলোচনা করা হচ্ছে না, একসঙ্গে খাওয়ার তো প্রশ্নই ওঠে না। হোটেলের জিমে গিয়ে ঘাম ঝড়ানোরও সুযোগ নেই। যাই করুন, রুমে বসেই করতে হচ্ছে। খেলোয়াড়দের হোটেল থেকে মাঠে নেওয়ার কাজে চারটি গাড়ির ব্যবস্থা করেছে অস্ট্রেলিয়া বোর্ড। বিশাল বাসে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে মাত্র ১০-১১ জন খেলোয়াড় নেওয়া হচ্ছে।

হোটেল থেকে ৩০ মিনিট দূরত্বে ব্ল্যাকটাউন স্পোর্টস পার্কে অনুশীলন করছেন ক্রিকেটাররা। সেখানেই শুধুমাত্র ক্রিকেটাররা একে অন্যের সঙ্গে দেখা করতে পারছেন। সেটাও ভিড় জমিয়ে আড্ডা নয়। চাইলে বাইরে থেকে খাবার আনানো যাচ্ছে, কিন্তু রুম থেকে বের হওয়া যাচ্ছে না। গাড়িতে পাশাপাশি সিটে বসা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। জিমের কাজগুলো মাঠেই সেরে নিতে হচ্ছে। ২৭ নভেম্বর সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে প্রথম ওয়ানডে। ইতোমধ্যেই ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজের সব ম্যাচের টিকিট শেষ হয়ে গেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা