kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে আগামীকাল

অনলাইন ডেস্ক   

২৯ অক্টোবর, ২০২০ ১৮:১৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে আগামীকাল

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে গত মার্চের মাঝামাঝি থেকে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন থমকে যায়। থমকে গিয়েছিল ক্রিকেটও। তবে গত জুলাই থেকে ক্রিকেটকে মাঠে ফেরায় ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। একে একে দেশটিতে খেলে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আয়ারল্যান্ড, পাকিস্তান আর অস্ট্রেলিয়া। এবার নিজ দেশে ক্রিকেট ফেরাচ্ছে পাকিস্তান। আগামীকাল থেকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ।

রাওয়ালপিন্ডিতে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা ১টায়। ওয়ানডে শেষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজও খেলবে দুই দল। যা ৭ নভেম্বর থেকে শুরু হবে। ২০১৫ সালের পর দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে পাকিস্তান। ২০১৫ সালে পাকিস্তান সফরে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ও দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছিলে জিম্বাবুয়ে। ওই সিরিজ দিয়ে কোনো দলকে ছয় বছর পর নিজ দেশে আথিয়েতা দিয়েছিল পাকিস্তান।

২০০৯ সালে সফররত শ্রীলঙ্কা দলের ওপর জঙ্গি হামলার পর দীর্ঘদিন কোনো দেশ পাকিস্তান সফর করেনি। অবশেষে জিম্বাবুয়েকে টাকার বিনিময়ে নিজেদের দেশে এনেছিল পিসিবি। তবে এবার আর কোন অর্থ দেওয়া হচ্ছে না। করোনার কথা মাথায় রেখে দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ হচ্ছে এতেই খুশি পাকিস্তানের ওয়ানডে অধিনায়ক বাবর আজম। এ সিরিজ দিয়ে অধিনায়ক হিসেবে ওয়ানডে অভিষেক হচ্ছে বাবরের। প্রথম ওয়ানডের আগে বাবর বলেন, 'করোনার মধ্যে দেশে ক্রিকেট ফিরছে, এটি আমাদের জন্য বড় স্বস্তির বিষয়। মাঠে নামতে আমরা সবাই উন্মুখ হয়ে আছি। আশা করছি, দুই দলই সিরিজটি উপভোগ করবে।'

পাকিস্তান-জিম্বাবুয়ে ওয়ানডেতে ৫৯বার মুখোমুখি হয়েছে। ৫২ বার জিতেছে পাকিস্তান, ৪বার জিম্বাবুয়ে। দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে নেমে খুশি জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক চামু চিবাবা। তিনি বলেছেন, 'সাত মাস পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে নামব আমরা। ইনজুরিতে দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে থাকলে যেমন খারাপ লাগে, তেমনই এতোদিন লেগেছিল। তবে অতীতকে মনে করতে চাই না। কাল থেকে ক্রিকেটকে আবারো উপভোগ করতে চাই, ভালো পারফরমেন্স করতে চাই।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা