kalerkantho

মঙ্গলবার । ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৪ নভেম্বর ২০২০। ৮ রবিউস সানি ১৪৪২

নিজেকে প্রমাণ করতেই ঋদ্ধির ক্যারিয়ার প্রায় শেষের মুখে

অনলাইন ডেস্ক   

২৮ অক্টোবর, ২০২০ ১৭:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নিজেকে প্রমাণ করতেই ঋদ্ধির ক্যারিয়ার প্রায় শেষের মুখে

তার নামের পাশে 'বিশ্বের সেরা উইকেটকিপার' 'সুপারম্যান সাহা' ইত্যাদি বহু বিশেষণ আছে। অথচ সেই ঋদ্ধিমান সাহাকেই নিজেকে প্রমাণ করার জন্য বছরের পর বছর লড়াই করতে হয়েছে। বসে বসে দেখতে হয়েছে তাকে টপকে জায়গা করে নিচ্ছেন কোনো এক বাঁহাতি তরুণ প্রতিভা। কারণ ঋদ্ধিমান নাকি ব্যাটিংটা ঠিক করতে পারেন না। তুলনায় বাঁহাতি ঋষভ পন্থ নাকি কয়েক যোজন এগিয়ে! অতঃপর ঋদ্ধি যখন নিজেক প্রমাণ করলেন, তখন তার ক্যারিয়ারের বাকি সামান্যই।

ব্যাটিংয়ের অনেক আগে যেখানে উইকেটকিপিং দেখা হয়, সেই টেস্ট ক্রিকেট তো অনেক পরের কথা; আইপিএলের মতো মঞ্চেও যে তিনি অনেকের চেয়ে এগিয়ে তা বার বার প্রমাণ করে দিয়েছেন ঋদ্ধিমান। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে মূলতঃ তার বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের সুবাদেই দারুণ জয় পেয়েছে হায়দরাবাদ। এক ডজন বাউন্ডারি এবং দুই ওভার বাউন্ডারিতে সাজানো ছিল তার ৮৭ রানের ইনিংস। চলতি আইপিএলে মাত্র দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নেমে ঋদ্ধিমান যেন বুঝিয়ে দিলেন, ওপেনিংয়ে নামলে তিনি কী করতে পারেন।

পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে ঋদ্ধির স্ট্রাইক রেট (১৩৭.৫)। যা 'ইউনিভার্স বস' ক্রিস গেইল (১৩৪.৯৭)-এর চেয়েও বেশি! এমনকি আইপিএলে পাওয়ার প্লের অন্তত ৪০০ বল খেলেছেন এমন ৪৭ ক্রিকেটারের মধ্যে স্ট্রাইক রেটে ঋদ্ধির চেয়ে এগিয়ে আছেন মাত্র ৪ জন। মঙ্গলবার পাওয়ার প্লে-তে ১০টি বল খেলেছেন ঋদ্ধি। মেরেছেন ৪টি বাউন্ডারি। নিন্দুকরা হয়ত বলবেন যে এর মধ্যে একটি বাউন্ডারি ব্যাটের কোণায় লেগে উইকেটের পাশ দিয়ে চলে যায়। কিন্তু তাতে তার দুর্দান্ত ইনিংসকে খাটো করাই হয় শুধু।

আইপিএল ক্যারিয়ারে ঋদ্ধি এখন পর্যন্ত ১২২টি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন। তবু এখনও পরের ম্যাচে সুযোগ পাবেন কিনা- এই সংশয় নিয়ে তাকে মাঠে নামতে হয়। অথচ আইপিএলে তার সেঞ্চুরি আছে। পাশাপাশি ৭টি হাফ সেঞ্চুরি। ক্যারিয়ারে স্ট্রাইক রেট ১৩২.৩৪ যা অনেক বড় ব্যাটসম্যানের কাছেও ঈর্ষণীয়। কিন্তু রেকর্ডে কিছু আসে যায় না। এবং সেটা ঋদ্ধির থেকে ভালো বোধহয় কেউ জানেন না। স্পিন খুবই ভালো খেলেন। ক্রিকেট বইয়ের সব ধরনের সুইপ তার দখলে আছে।

ঋদ্ধির ক্যারিয়ার প্রথম থেকেই ঢাকা পড়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনি নামক মহীরুহের ছায়ায়। ২০১০ সালে অভিষেক হলেও এ পর্যন্ত খেলেছেন মাত্র ৩৭ টেস্ট। বিভিন্ন সময়ে শুনেছেন তিনিই বিশ্বের সেরা উইকেটকিপার। কিন্তু সেই 'বিশ্বসেরা উইকেটকিপার'কে জাতীয় দলের খেলা দেখতে হয়েছে মাঠের বাইরে থেকে। 'ব্যাটিং করতে পারেন না'- এই নতুন অভিযোগ শোনা ঋদ্ধির কিন্তু টেস্টে ৩টি সেঞ্চুরি আছে। কিন্তু তবুও ৩৬ বছর বয়সেও ঋদ্ধিমানকে নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ দিতে হচ্ছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা