kalerkantho

সোমবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৩০ নভেম্বর ২০২০। ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

দিল্লিকে হারিয়ে প্লে অফের আশা জিইয়ে রাখলো কলকাতা

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ২০:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দিল্লিকে হারিয়ে প্লে অফের আশা জিইয়ে রাখলো কলকাতা

দাপটের সঙ্গে ব্যাটিং-বোলিং করে দারুণ ফর্মে থাকা দিল্লিকে হারাল কলকাতা নাইট রাইডার্স। নারিন ও রানার ব্যাট এবং বরুণ ও কামিন্সের বলে ম্যাচ পকেটে পুরে প্লে অফের আশা জিইয়ে রাখল শাহরুখ খানের দল। ১১ ম্যাচ খেলে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার নম্বরের উঠে এলে দলটি।

আইপিএল ২০২০-এর অতি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে টসে জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় দিল্লি ক্যাপিটালস। আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামের ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে রান তাড়া করে ম্যাচ জিততে চেয়েছিল দিল্লি। সেই মতো শুরুটা দুর্দান্ত করেন দিল্লি ক্যাপিটালসের বোলাররা। 

৪২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় কেকেআর। ৯, ১৩ এবং ৩ রান করে আউট হন যথাক্রমে ওপেনার শুভমান গিল, রাহুল ত্রিপাঠী এবং দীনেশ কার্তিক। ঠিক এখান থেকেই খেলা ধরে নেন কেকেআরের দ্বিতীয় ওপেনার নীতীশ রানা ও সুনীল নারিন। দুই ব্যাটসম্যানের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে লাইন ও লেন্থ হারিয় ফেলেন দিল্লির বোলাররা।

মাঠের সবদিকে শট খেলেন নীতীশ রানা ও সুনীল নারিন। দিল্লি ক্যাপিটালসের কার্যত সব বোলারকেই অবলীলায় মাঠের বাইরে পাঠান দুই ব্যাটসম্যান। রানা ও নারিনের মধ্যে ১১৫ রানের পার্টনারশিপ হয়। চার ম্যাচ পর মাঠে নেমে ৩২ বলে ৬৪ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন ক্যারিবিয়ান অল রাউন্ডার। ছটি চার ও চারটি ছক্কা আসে তাঁর ব্যাট থেকে। ৫৩ বলে ৮১ রান করেন রানা। ১৩টি টার ও একটি ছয় আসে তাঁর ব্যাট থেকে। 

ডেথ ওভারে বলে রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন কেকেআর অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান। দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন কাগিসো রাবাডা ও আনরিচ নরকিয়া। দুই উইকেট নেন মার্কাস স্টইনিসও।

১৯৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩৫ রান তুলতে সক্ষম হয় দিল্লি ক্যাপিটালস। কেকেআরের হয়ে ৪ ওভার বল করে ২০ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নেন স্পিনার বরুণ চক্রবর্তী। তিন উইকেট নেন পেসার প্যাট কামিন্স।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা